তারুণ্যের যুক্তিতর্কে মুখরিত মেডিকেল কলেজ বিতর্ক উৎসব

0

‘চিকিৎসা খাতকে বিকেন্দ্রীকরণ করা জরুরি হয়ে পড়েছে। এটা সময়ের দাবি। দেশের স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন ঘটাতে এবং প্রান্তিক পর্যায়ে সেবা পৌঁছে দিতে চিকিৎসা খাতকে বিকেন্দ্রীকরণের বিকল্প নেই। শুধু বেসরকারি মেডিকেল কলেজ বাড়লেই হবে না, শিক্ষার মান বজায় রাখতে হবে এবং দক্ষ চিকিৎসকদের সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে হবে।’

 

নিজ দলের ইস্যুর পক্ষে জোরালো যুক্তি তুলে ধরে এ বক্তব্য শেষ করা মাত্র টেবিল চাপড়ে বক্তাকে সমর্থন জানালেন দলের সহযোগী শিক্ষার্র্থীরা। অন্য দলের প্রতিযোগীরাও বসে নেই। এই যুক্তি খণ্ডন করে শ্রেয়তর যুক্তি হাজির করতে কাগজ-কলম নিয়ে ব্যস্ত তারা।

শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলের পর যুক্তি পাল্টা যুক্তিতে এভাবেই জমে ওঠেছিলো বিতর্ক। পঞ্চম মেডিকেল কলেজ জাতীয় বিতর্ক উৎসব চলাকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের একটি কক্ষের দৃশ্য ছিলো এটি।

বিতর্কে বিপক্ষ দলকে হারিয়ে দিতে যেন তর্কযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছেন একেক জন বিতার্কিক। তবে এ যুদ্ধ সহিংস নয়। এ যুদ্ধ যুক্তির মুখরতায় মানবতাকে জাগ্রত করার যুদ্ধ।

এমনিভাবে তরুণ শিক্ষার্থীদের যুক্তিতর্কে মুখরিত হয়ে ওঠে ফারাজ আইয়াজ হোসেন স্মরণে ন্যাশনাল ডিবেট ফেডারেশন বাংলাদেশ (এনডিএফবিডি) ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ডিবেটিং ক্লাব আয়োজিত এ বিতর্ক উৎসব। রাজশাহী মেডিকেল কলেজের বিভিন্ন ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয় এ বিতর্ক প্রতিযোগিতা। শনিবার প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার নিজ নিজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ, খুলনা মেডিকেল কলেজ, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ, সিলেট মেডিকেল কলেজ, বারডেম মেডিকেল কলেজ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, জালালাবাদ মেডিকেল কলেজ, উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ, ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজ, শাহ মখদুম মেডিকেল কলেজ।

বিতর্ক প্রতিযোগিতা শেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। এর আগে সকালে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের চিকিৎসা ক্ষেত্রে অবদানের জন্য জন্য স্বাস্থ্য অধিদফরের সাবেক মহাপরিচালক ডা. দীন মোহাম্মদ নুরুল হককে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়।

দুই দিনব্যাপী এ উৎসবে দেশের বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বিতর্ক ও কুইজ প্রতিযোগিতা, ইংরেজি ও বাংলাভাষায় বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সচেতনতামূলক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে।

উৎসবের দ্বিতীয় দিন বর্তমান বাংলাদেশের অন্যতম সমস্য সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে ‘সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাথমিক করণীয়’ বিষয়ে সেমিনার পরিচালনা করবেন খ্যাতিমান অর্থোপেডিক সার্জন ও বাংলাদেশ অর্থোপেডিক সোসাইটির সাবেক সভাপতি প্রফেসর ডা.আমজাদ হোসেন।

খবরঃ বাংলানিউজ২৪

Share.



Comments are closed.

Open