রুয়েটে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৫

2

হল থেকে ল্যাপটপ চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনায় অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের মধ্যে একজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সংঘর্ষের সময় হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

রুয়েট সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রুয়েটের জিয়া হল থেকে চারটি ল্যাপটপ চুরি হয়। হারানো ল্যাপটপ উদ্ধার করতে রুয়েটের সহকারী ছাত্রকল্যাণ পরিচালক ও মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা সম্পাদক সিদ্ধার্থ শঙ্কর রায় ওই হলের বিভিন্ন কক্ষে তল্লাশি চালাতে গেলে রুয়েট ছাত্রলীগের সহসম্পাদক সাকিল কবীর বাধা দেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সিদ্ধার্থ শঙ্কর সাকিলকে চড় মারেন। এরপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ওই শিক্ষককে প্রাধ্যক্ষের কক্ষে আটকে রাখেন। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এবং রুয়েট ছত্রালীগের মধ্যে উত্তেজনা চলছিলো।

এ বিষয়ে রুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান হিমেল বলেন, আমি ক্যাম্পাসের বাইরে আছি। হলের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জানতে পারলাম, বহিরাগত কিছু অস্ত্রধারী হলের ভেতর হামলা চালিয়েছে। আমরা লিটন ভাইয়ের (রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি) সঙ্গে আলোচনা করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবো।

খবরঃ দৈনিক সানশাইন

Share.



2 Comments