রাজশাহীতে গ্রেফতার ছেলে-ছেলের বৌকে রিমান্ডে চায় পুলিশ

0

রাজশাহীতে বৃদ্ধ বাবাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ছোট ছেলে ও তার স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নিতে চায় রাজপাড়া থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হায়দার আলী তাদের সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেছেন।

তবে শুনানি শেষে রিমান্ডের বিষয়টি জানা যাবে। ‍

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে রাজশাহীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমান উল্লাহ আমান  এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওসি বলেন, ঘটনার পর ওই বাড়ি থেকে নিহতের ছোট ছেলে শরীফুল ইসলাম ওরফে শরীফকে (৩০) আটক করে পুলিশ। পরে তার স্ত্রী হাবিবা আক্তার ওরফে লাইজুকেও আটক করা হয়। আটকের পর থানায় রেখে গতকাল জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে তারা স্বীকারোক্তিমূলক কোনো জবানবন্দি দেননি। তাই তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন রয়েছে।

এজন্য আবদুল শেখ হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আদালতে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদনও জানানো হয়েছে। রিমান্ড মঞ্জুর হলে থানায় নিয়ে এসে তাদের আবারও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

সোমবার (০৯ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে নিহতের মেজ ছেলে আবু বাক্কার সিদ্দিক ওরফে সুরুজ বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলাটি দায়ের করেন।

এতে গ্রেফতারকৃত এই দুইজন ছাড়াও বড়ভাই আবু তাহের ওরফে সুজন (৪২) ও তার স্ত্রী আক্তারুন নাহার বেগমকে (৩৫) আসামি করা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে তারা পলাতক রয়েছেন। বর্তমানে পুলিশ তাদের খুঁজছে বলেও জানান মহানগরীর রাজপাড়া থানার ওসি।

এর আগে গতকাল সোমবার (০৯ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মেজ ছেলের পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে মহানগরীর রাজপাড়া থানার বহরমপুর এলাকায় বৃদ্ধ বাবা মোহাম্মদ আবদুল শেখকে (৬৫) স্ত্রীদের সহায়তায় বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে তার বড় ও ছোট ছেলে। পরে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশ নিহতের ছোট ছেলে শরীফুল ইসলাম ওরফে শরীফকে (৩০) ও তার স্ত্রী হাবিবা আক্তার লাইজুকে আটক করে।

খবরঃ বাংলানিউজ

Share.



Comments are closed.