বাঘায় ইরানি নাগরিকদের মারপিটের ঘটনায় মামলা

0

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় দুই ইরানি নাগরিককে আটকে মারপিট ও ডলার কেড়ে নেওয়ার ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

বাঘা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তরিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে মামলাটি দায়ের করেছেন।
আটককৃতদের এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিকেলে আদালতের মাধ্যমে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ জানান, মামলায় বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম বাজারের মোবাইল ব্যবসায়ী ইয়াকুব আলীর ছেলে ইয়াজুল ইসলাম, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল গনির ছেলে আরিফুল ইসলাম ও একই এলাকার মসলেম উদ্দিনের ছেলে স্বপনকে আসামি করা হয়েছে।

ডলারসহ মানিব্যাগটি উদ্ধারের পর তাদের ফেরত দেওয়া হয়েছে। মামলা দয়েরের পর আটক দু’জনকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক স্বপনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।

সোমবার (০৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ইরানি তিন নাগরিক আলীনা জাফি ও তার স্ত্রী আলী লিমু আবসাদ এবং আলীনা জাফির বন্ধু আলী আহমাদুল একটি প্রাইভেটকারে ইশ্বরদী থেকে রাজশাহী যাচ্ছিলেন। পথে তারা উপজেলার মনিগ্রাম বাজারে থেমে মোবাইল ব্যবসায়ী ইয়াজুলের দোকান থেকে একটি মেমোরি কার্ড রিডার কিনে এক হাজার টাকার নোট দেন। পরে দাম বাবদ ৫০ টাকা রেখে বাকি ৯শ’ ৫০ টাকা ফেরত দেন ইয়াজুল ।
কিন্তু ফেরত দেওয়া টাকার মধ্যে থেকে তারা একটি ছেড়া নোট পরিবর্তন করে দেওয়ার জন্য বলেন ব্যবসায়ী ইয়াজুলকে। এ নিয়ে বাক-বিতণ্ডার এক পর্যায়ে তাদের দিয়ে ওই এলাকার স্বপন ও ইয়াজুল ইরানি দুই পুরুষ নাগরিককে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। এ সময় তাদের মানিব্যাগটি ছিনিয়ে নেওয়া হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ইয়াজুল ও আরিফুলকে আটক করে।

খবরঃ বাংলানিউজ

Share.



Comments are closed.

Open