আমির খানের পক্ষে মৌসুমী ওমর সানির সমর্থন

বিনোদন

বলিউডের মি. পারফেক্টশনিস্ট খ্যাত তারকা আমির খান এখন টক অব দ্য কান্ট্রি। সম্প্রতি ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা নিয়ে মন্তব্য করে তোপের মুখে পড়েন বলিউডের এ তারকা। রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাও হয়েছে তার বিরুদ্ধে। এমনকি তাকে চড় মারার জন্য এক লাখ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে।

এ নিয়ে ভারতজুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। তার ঢেউ এসে লেগেছে পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতেও। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতে ফলাও করে এ বিষয়ক খবর প্রকাশ করা হচ্ছে। আমির বিতর্কে এবার বাংলাদেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমর সানি মুখ খুলেছেন। আমির খানের প্রসঙ্গ ছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে কয়েকজন ব্লগার, প্রকাশক হত্যা ও বুদ্ধিজীবিদের হত্যার হুমকি নিয়েও অভিমত জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি মুক্তমনা লেখকদের বিষয়েও মতামত ব্যক্ত করেছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় এ তারকা।

আমির প্রসঙ্গে ওমর সানি গতকাল শুক্রবার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ভারতে আমির খানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করা হয়েছে। সরকার থেকে যে ধরনের মৌলবাদী বিষয়গুলো উস্কে দেওয়া হয়েছে তা ঠিক নয়। আমার দৃষ্টিকোণ থেকে মনে হয়, আমির খান যা বলেছেন একদম ঠিক বলেছেন। এ জন্য আমির খানকে আমরা অবশ্যই সমর্থন দিতে পারি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ পত্র-পত্রিকায় আমরা ভারতে গো-হত্যাসহ বিভিন্ন বিষয় যে ধরনের খবর দেখছি তাতে পরিবেশটা সুবিধার মনে হচ্ছে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমির খানের পাশে আমরা অবশ্যই থাকবো। যেহেতু তিনি শিল্পী। তার বক্তব্য আমরা ইতিবাচক হিসেবেই নিচ্ছি। আমার স্ত্রী মৌসুমীসহ আমরা সবাই আমির খানের পক্ষে একমত।’

সম্প্রতি বাংলাদেশে কয়েকজন ব্লগার ও প্রকাশককে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকজন বুদ্ধিজীবিকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে ওমর সানি বলেন, ‘প্রথমেই বলবো এ বিষয়টি খুবই নেক্কারজনক। প্রত্যেকটা মানুষের স্বাধীনতা থাকা ভালো কিন্তু এতটা স্বাধীনতা থাকা ভালো নয়। ধর্মীয় কোনো বিষয়ে আঘাত না করাই ভালো। সেটা মুসলিম হোক, হিন্দু হোক, খ্রিষ্টান বা বৌদ্ধ হোক না কেন, কারো ধর্মকে ছোট করে কিছু লেখাকে আমি সমর্থন করি না। মুক্ত চিন্তা অবশ্যই ভালো। তবে স্পর্শকাতর বিষয়গুলো থেকে আমাদের বিরত থাকা উচিত। বিদ্রুপ করা ভালো কাজ নয়, এরচেয়ে আলোচনা করা ভালো।’

তিনি আরো বলেন, ‘হত্যা কোনো ধর্মই সমর্থন করে না। আমাদের নবী করিম (সঃ) কোনো দিন হত্যার বদলে হত্যা করেননি। আমরা যদি রাসুল (সঃ) সর্ম্পকে পড়াশোনা করি তাহলে মনে হয় অন্যান্য ধর্মের লোকেরাও আমাদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন। আমি এটাই বুঝি।’

উল্লেখ্য, আমির খান সম্প্রতি রামনাথ গোয়েঙ্কা এক্সেলেন্স ইন জার্নালিজম পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘গত ৭-৮ মাস ধরে ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা চলছে। সমাজের মানুষের মধ্যে ‘নিরাপত্তাহীনতা’ এবং ‘ভয়’ কাজ করছে।’ এ ছাড়াও ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার কারণে আমির ভারত ছাড়ারও চিন্তা করেছিলেন বলে জানান। এরপর থেকেই আমির তোপের মুখে পড়েন দেশটির রাজনীতিক এবং বিভিন্ন সংগঠনের। এমনকি বলিউডের অনেক অভিনয় শিল্পীও দ্বিমত পোষণ করেছেন আমিরের সঙ্গে।

1 thought on “আমির খানের পক্ষে মৌসুমী ওমর সানির সমর্থন

Comments are closed.