এখন থেকে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের চিকিৎসা রাজশাহীতেই

রাজশাহী

এবার বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করলো পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি)। সোমবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার মহিষ বাথান এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে কেন্দ্রটির উদ্বোধন করা হয়। রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন। এ সময় সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির সমন্বয়কারী ড. ভেলরি এ টেইলর।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল মমিন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল ইসলাম, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক মাসুম হাবিব, অধ্যাপক সামশুল আলম। রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফজলে রাব্বি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ট্রাস্ট ফর দ্যা রিহ্যাবিলিটেশন অফ দ্যা প্যারালাইজড (টিআরপি) এর সভাপতি সাইদুর রহমান।

উদ্বোধনকালে অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানান, সাভারে সিআরপির পুনর্বাসন কেন্দ্রে যে সমস্ত পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগী যায়, তার প্রায় ১৫ ভাগ ছিল রাজশাহীর। কিন্তু সাভারে যেতে যেমন এ সব রোগীর অর্থ ব্যয় হতো, তেমনি সময়ও। এসব দিক বিবেচনা করে প্রায় ৪ বছর আগে রাজশাহীতে সিআরপি’র শাখা স্থাপনের চিন্তা-ভাবনা করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় দুই বছর ধরে মহানগরীর মহিষ বাথান এলাকায় সিআরপির শাখায় কার্যক্রম শুরু হয়। এর ফলে রাজশাহীসহ গোটা উত্তরাঞ্চলের মানুষের সিআরপির সেবা নিতে আর ঢাকায় যেতে হবে না। রাজশাহীতেই এ চিকিৎসা সেবা পাবেন রোগীরা।

এখানে গড়ে প্রতিদিন অন্তত ২০ জন রোগী চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন বলেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা রাজশাহীতে সিআরপি’র শাখা স্থাপনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান। এছাড়া প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনার ক্ষেত্রে যে কোনো সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি। সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, রাজশাহীতে সিআরপির যাত্রার মধ্য দিয়ে উত্তরবঙ্গের চিকিৎসা জগতে নতুন দিগন্তের সূচনা হলো।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/463921.html