এবার কানাডার ব্যাংক নোটে নারীর ছবি

আন্তর্জাতিক

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পর এবার কানাডার ব্যাংক নোটে যুক্ত হচ্ছে সে দেশের নারীর ছবি। নারীর অবদানের প্রতি সম্মান জানাতে এমন ঘোষণাই দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

দেশটির মুদ্রার দেড় শ’ বছরের ইতিহাসে এই প্রথমবার কোনো কানাডিয়ান নারীর ছবি শোভা পাবে।

মঙ্গলবার (০৮ মার্চ) ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস’ উপলক্ষে এক আয়োজনে এ ঐতিহাসিক ঘোষণা দেন ২৩তম প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো।

ঘোষণা অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ইস্যুতেই একজন সেরা ও আদর্শ নারীর চেহারা যুক্ত হবে দেশটির মুদ্রার ইতিহাসে। সে নারীর ছবিটি মূলত সকল নারীর প্রতীক হবে। সেদিক থেকে বলা যায়, মার্কিন মুদ্রার আগেই আধুনিক হচ্ছে কানাডার মুদ্রার ইতিহাস। কারণ মার্কিন ১০ ডলারের নোটে নারীছবি যুক্ত হবে ২০২০ সালে।

কিন্তু কে হবেন কানাডার সেই সৌভাগ্যবতী? কেমন হবেন তিনি? বয়স কেমন? জীবিত কেউ, নাকি পরলোকগত কেউ?

দেশের নাগরিকদের পরামর্শেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটি আসবে বলে জানিয়েছেন ট্রুডো। তিনি বলেন, কোন নারীর ছবি যাবে ব্যাংক নোটে- দেশবাসীর কাছ থেকে সে পরামর্শ নেবে ব্যাংক অব কানাডা।

বিস্তারিত জানাতে আহ্বান জানালে অর্থমন্ত্রী বিল মরনো বলেন, এখন সময় নারীদের ব্যাংক নোটে যুক্ত করার। শিগগিরই কানাডার মুদ্রায় কানাডার নারীর ছবি যুক্ত হবে।

কোন নোটটিতে নারীমুখ শোভা পেতে যাচ্ছে, সেটি স্পষ্ট করেননি তারা। তবে একটু ধারণা দিয়েছেন যে, কোনো কাল্পনিক নারীর ছবি নয়, বরং এমন কারও প্রস্তাব রাখতে হবে, যিনি সেরা ও ১৯৯১ সালের ১৫ এপ্রিলের (২৫ বছর) আগে পৃথিবী ছেড়েছেন।

কানাডার ১৫০ বছরের মুদ্রার ইতিহাসে এখন পর্যন্ত কেবল রানী এলিজাবেথের ছবিই রয়েছে। কর্তারা জানাচ্ছেন, দেশের জন্য নারীরা যে অবদান রেখেছেন, তার স্বীকৃতি ও সম্মান জানাতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এদিকে এমন নারী খুঁজতে সংশ্লিষ্টরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইট সিবিসি ফোরামের মাধ্যমে নিয়েছেন অন্যরকম উদ্যোগ।

‘আমরা জানতে চাচ্ছি, এ ঘোষণার পর আপনারা কী ভাবছেন? কোন কানাডিয়ান নারীকে আপনারা প্রতীক ধরে ব্যাংক নোটে দেখতে চান? সিবিসি ফোরামে সরাসরি আপনাদের মতামত জানিয়ে দিন, আমাদের ওয়েবসাইটে একটি ভিন্ন ধরনের আলাপচারিতা চাচ্ছি’- ফোরামের ঘোষণায় এমনটি বলা হচ্ছে।

সিবিসি ফোরাম যেকোনো ইস্যুতে সাধারণ মানুষের মত, তর্ক ও পরামর্শের সরাসরি সুযোগ তৈরি করতে চায়। এক্ষেত্রেও কার কাছে কোন নারী কোন আঙ্গিকে সেরা এবং নোটে স্থান পাওয়ার যোগ্য, তা জানতে চাওয়া হচ্ছে। যার মধ্যে কিছু কিছু তাদের সিবিসিনিউজ.সিএ-তে যোগ হচ্ছে।

যারা এ আলাপচারিতায় অংশ নিয়েছেন, তাদেরও উল্টো কিছু প্রশ্ন রয়েছে। একদিকে নাম প্রস্তাব করছেন, অন্যদিকে জানতে চাচ্ছেন, তরুণ কেউ নয় কেন? মৃত কাউকেই কেন নোটে যুক্ত করতে হবে? শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভালো করছে বা দেশগঠনে অবদান রাখছে- এমন কোন তরুনীর ছবি কেন দেওয়া হবে না?

সব মিলিয়ে জমে উঠেছে তর্ক ও আলাপ।

সেদেশের পত্রিকাগুলো জানাচ্ছে, কানাডাবাসী তাদের পছন্দের আদর্শ ও সেরা নারী সম্পর্কে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে জানাতে পারবেন এবং টুইটারে হ্যাশট্যাগ করে সমর্থনও দিতে পারবেন। প্রক্রিয়াটি ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/472431.html