করোনা আতঙ্কে রাজশাহীতে বেশি দামে চাল বিক্রি করায় জরিমানা

রাজশাহী

করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক পুঁজি করে বাড়তি দামে চাল বিক্রির অভিযোগে রাজশাহীর শাহ মখদুম রাইস এজেন্সিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) সকালে রাজশাহীতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর দাম স্থিতিশীল রাখতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতামূলক লিফলেটও বিতরণ করা হয়।

সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজারে অভিযান শুরু করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় খুচরা চাল বিক্রেতারা অভিযোগ করেন, পাইকারি বাজারে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় খুচরা বাজারে এর প্রভাব পড়ছে।

এমন অভিযোগ পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম কুমারপাড়া এলাকায় পাইকারি চালের বাজারে অভিযান চালান। পরে পর্যাপ্ত মজুদ থাকা সত্ত্বেও কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে চালের দাম বাড়ানোর অভিযোগে শাহ মখদুম রাইস এজেন্সিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া ওই এলাকার বিভিন্ন আড়ত ও খুচরা বাজারে গিয়ে করোনা ভাইরাস আতঙ্ককে পুঁজি করে যেন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর দাম না বাড়ানো হয় সে ব্যাপারেও সতর্ক করেন রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অন্যদিকে অতিরিক্ত জনসমাগম রোধে রাজশাহী মহানগরীর পার্ক ও বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান চালানো হবে বলেও জানিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এরইমধ্যে রাজশাহীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। এ নির্দেশনা না মানলে সংক্রামক ব্যাধি আইনে জরিমানা করা হবে বলেও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অভিযান পরিচালনাকালে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আবু আসলাম সাংবাদিকদের জানান, করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক পুঁজি করে কেউ যেন বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে না পারে। মজুত থাকার পরও নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের দাম না বাড়াতে পারে সেজন্য জেলা প্রশাসন আজ থেকে মাঠে থাকবে। নিয়মিত বাজার পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত নিয়ে তাদের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ