কুয়েটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ক্যাম্পাসের খবর

কুয়েটখুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এর ২০১৫-১৬ইং শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ বি.এস-সি. ইঞ্জিনিয়ারিং ও ব্যাচেলর অব আরবান এন্ড রিজিওনাল প্লানিং (বিইউআরপি) কোর্সের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল সোমবার (০৯ নভেম্বর) সন্ধায় প্রকাশিত হয়েছে। আগামী ১২ নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের কথা থাকলেও শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়টি বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ও শিক্ষকগণের নিরলস প্রচেষ্টায় নির্ধারিত সময়ের তিন দিন আগেই এই ফলাফল প্রকাশ করা হলো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে (www.kuet.ac.bd, www.admission.kuet.ac.bd) এই ফলাফল ও ভর্তি সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর নির্ধারিত সময়ের তিন দিন আগেই এ ফলাফল প্রকাশের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

গত ০৬ নভেম্বর শুক্রবার কুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ৩টি অনুষদের ১১টি বিভাগে মোট ৮৭৫ আসনের বিপরীতে মোট ১০২০৯ জন আবেদনকারী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের সুযোগ পায়। তন্মধ্যে ৭৫৭৫ জন পরীক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এবার কুয়েটের পুরকৌশল (সিই) বিভাগে ১২০ জন, তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল (তওই) বিভাগে ১২০ জন, যন্ত্রকৌশল (এমই) বিভাগে ১২০ জন, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগে ১২০ জন, ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইসিই) বিভাগে ৬০ জন, ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইপিই) বিভাগে ৬০ জন, লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং (এলই) বিভাগে ৬০ জন, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং (টিই) বিভাগে ৬০ জন, আরবান এন্ড রিজিওনাল প্লানিং (ইউআরপি) বিভাগে ৬০ জন, বিল্ডিং ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড কনস্ট্রাকশন ম্যানেজমেন্ট (বিইসিএম) বিভাগে ৬০ জন, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (বিএমই) বিভাগে ৩০ জন এবং সংরক্ষিত ৫টি আসনসহ সর্বমোট ৮৭৫ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হবে।

আগামী ৩০ নভেম্বর ২০১৫ তারিখ সোমবার থেকে বি.এস-সি. ইঞ্জিনিয়ারিং ও বিইউআরপি কোর্সের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষের ১ম টার্মের ছাত্রদের ওরিয়েন্টেশন ও ক্লাশ শুরু হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ আগামী ১০ মার্চ ২০১৬ইং বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা।