কোরবানির বর্জ্য সরাতে দেড় হাজার কর্মী রাসিকের

রাজশাহী

রাজশাহী নগর এলাকায় কোরবানির বর্জ্য সরাতে প্রায় দেড় হাজার কর্মী কাজ করছে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক)।

কোরবানি শেষ হবার পর থেকেই শুরু হয়েছে বর্জ্য সরানোর কাজ। শনিবার দিবাগত রাত ২টার মধ্যেই নগরীকে বর্জ্যমুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে রাসিক।

গত ২৬ জুলাই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ক এক সভায় সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছিলেন, ঈদের দিন রাতের মধ্যেই নগরী এলাকার কোরবানির সকল বর্জ্য অপসারণ করা হবে। ঈদের পরদিন পরিচ্ছন্ন শহর পাবেন নগরবাসী।

সেই অনুযায়ী পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা কাজ করছেন। সঙ্গে রয়েছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলররা। তারা কার্যক্রম তদারকি করছেন।

রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি সরিফুল ইসলাম বাবু বলেন, সকাল ১০টা থেকে আমাদের পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা কাজ শুরু করেছেন। তাদের সঙ্গে আমি নিজেও আছি।

তিনি জানান, নগরীর বিভিন্ন রাস্তা বা পাড়া-মহল্লা থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করে প্রতিটি ওয়ার্ডের সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনে রাখা হচ্ছে। সন্ধ্যায় সেখান থেকে বর্জ্য ভাগাড়ে নিয়ে ফেলা হবে। সন্ধ্যা ৬টায় সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

প্যানেল মেয়র আরও বলেন, রাত ২টার মধ্যে শহরে আমরা কোরবানির বর্জ্য সরিয়ে ফেলবো। সকালে ঘুম থেকে উঠে নগরবাসী আবার পরিচ্ছন্ন শহর দেখতে পাবেন। সেই লক্ষে আমরা কাজ করছি।

এদিকে, কোরবানির বর্জ্য অপসারণে এবারও পরিচ্ছন্ন বিভাগের সকল (কেন্দ্রীয় এবং ওয়ার্ড) পর্যায়ের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের ঈদের দিন ছুটি বাতিল করা হয়েছে। সকল কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষে ঈদের দিন কন্ট্রোল রুমও খোলা হয়েছে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ জাগোনিউজ২৪