খাতা পুনর্মূল্যায়ন চান রাবির ছাপচিত্র বিভাগের শিক্ষার্থীরা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

ক্লাস ছাড়াই পরীক্ষা নেয়া, পরীক্ষার খাতা হারানো, শিক্ষার্থীদের অবমূল্যায়নসহ একঝাঁক অভিযোগ উঠেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে। এর প্রভাব পড়েছে বার্ষিক ফলাফলেও। আগের বছরগুলোয় ভালো ফলাফল হলেও এবার হঠাৎ ধস নামায় বিভাগটির তৃতীয় বর্ষের খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি জানিয়েছেন ১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, ছাত্র উপদেষ্টাসহ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের কাছে এ বিষয়ে আবেদন জানিয়েছেন তারা।

তাদের অভিযোগ, চিত্রকলা গ্রুপের শিক্ষার্থীদের ধারাবাহিক ভাবে খারাপ ফলাফল হচ্ছে। নিয়মিত ক্লাস না হওয়ার পরও পরীক্ষায় বসতে বাধ্য করেন শিক্ষকরা। ব্যক্তিগত ক্ষোভ শিক্ষার্থীদের ওপর প্রয়োগ করার অভিযোগের পাশাপাশি শ্রেণি নম্বর সংরক্ষণ না করা এবং কাজের সঠিক মূল্যায়ন না করার কথাও জানিয়েছেন তারা।

সূত্রে জানা যায়, বিভাগটির তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা শেষ হয় গত ৩ মার্চ। এর ছয় মাসেরও বেশি সময় পর চলতি মাসের ১৫ তারিখ ফলাফল প্রকাশ করা হয়। কিন্তু ফলাফল আশানুরূপ না হওয়ায় খাতা পুনর্মূল্যায়নের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আদৌ ফলাফল পুনরায় মূল্যায়ন সম্ভব কি না জানতে চাইলে ছাপচিত্র বিভাগের সভাপতি সুশান্ত কুমার অধিকারী বলেন, এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে উপাচার্যের সঙ্গে বিভাগীয় শিক্ষকদের নিয়ে আলোচনা করেছি। ২২ সেপ্টেম্বর একাডেমিক কমিটির সভায় শিক্ষার্থীদের এ বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর