গ্রীষ্মের ছুটিতেও রাবিতে আন্দোলন চলবে

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

গ্রীষ্মকালীন ছুটির মধ্যেও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যার বিচার দাবিতে চলমান আন্দোলন অব্যাহত রাখবেন শিক্ষকরা।

সোমবার (০২ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় ‘মুকুল প্রতিবাদ ও সংহতি মঞ্চ’ থেকে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষকরা এ ঘোষণা দেন।

আগামী ৬ মে থেকে ২৭ মে পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রীষ্মের ছুটি থাকবে। তবে অফিস খোলা থাকবে ১৯ মে পর্যন্ত। তাই ১৯ মে পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষকরা।

এরআগে সকাল ১০টায় শহীদুল্লাহ কলা ভবনের সামনে থেকে একটি মৌন মিছিল বের করেন ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে পুনরায় একই স্থানে এসে সমাবেশে করে।

এতে বক্তব্য রাখেন বিভাগের অধ্যাপক শহীদুল্লাহ্, অধ্যাপক জহুরুল ইসলাম, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী জাহিদুর রহমান, অধ্যাপক রেজাউল করিমের মেয়ে রিজওয়ানা হাসিন শতভি প্রমুখ।

শতভি দ্রুত এ হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করে বলেন, যারা বিচার চাইলো তারা কবরে যাওয়ার পরে বিচার করলে কোনো লাভ হবে না। তাই দ্রুত বিচার নিশ্চিত করতে হবে।

সমাবেশ শেষে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থীরা প্রতীকী কফিন মিছিল বের করেন। মিছিলটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শিক্ষক সমিতির কর্মসূচিতে যোগ দেয়।

এদিকে, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের ডাকা তিনদিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাবিতে তিন ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেছেন শিক্ষকরা।

কর্মসূচি চলাকালে দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত সিনেট ভবনের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষক সমিতি।

সমাবেশে রাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শাহ্ আজমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সাবেক অধ্যাপক মখলেছুর রহমান, সমাজকর্ম বিভাগের সাবেক অধ্যাপক জালাল উদ্দিন, সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা, প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সেলিনা পারভীন, ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি খোন্দকার ইমামুল হক, সমাজকর্ম বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ছাদেকুল আরেফিন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক নীলুফার সুলতানা, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি, তোফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।

খবরঃ বাংলানিউজ