ঘন কুয়াশা রাজশাহীতে বাড়ছে শীতের তীব্রতা, কাহিল রাতের যাত্রী, ছিন্নমুল মানুষ

রাজশাহী

সকাল গড়িয়ে বেলা পড়ে গেলো। সূর্যের দেখা নেই। শেষে তার দেখা মিলল বেলা ১২টার সময়। রাজশাহীতে সকাল থেকে ছিল হিমেল হাওয়া সঙ্গে ঘন কুয়াশা। রাস্তা ছিল প্রায় ফাঁকা। যে যান চলাচল করেছে তা হেড লাইট জ্বালিয়ে। তাও চলেছে ধীর গতিতে। সবচেয়ে বেশি সমস্যায় ছিলেন যারা রাতে নগরীর বাইরে গেছেন বা এসেছেন। বিশেষত যাদের গন্তব্য ছিল ঢাকা। অথবা যারা রাতে ফিরেছন নগরীতে। গতরাতে কয়েকবার যমুনা সেতুতে যাতায়াত বন্ধ করে দেয়া হয়। যার কারনে শীতের রাতে যাত্রীদের কাটাতে হয়েছে রাস্তায়।

শীতের রাতে রাস্তায় কাটানো যাত্রী মনোয়ার হোসেন জানালেন, শুক্রবার রাত ১০ টায় রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন। বাস যখন যমনু সেতুর কাছে আসে তখন দেখা যায় সেতুতে যান চলাচল বন্ধ। সব বাধা পেরিয়ে ধীর গতিতে চলতে থাকে। বেলা ১২ টায় রাজশাহী পৌছান। এই ধরণের দূর্ভোগে ছিলেন হাজার হাজার যাত্রী।

আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে, গতকাল দিনের সর্বনি¤্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক এক ডিগ্রী এবং সর্বোচ্চ ছিল ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়েস। বাতাসের আদ্রতা সকাল ৬ টায় ১০০ শতাংশ। সন্ধ্যা ৬টায় ৮৩ শতাংশ। রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়া সহকারি আশরাফুল আলম বলেন, বছরে শীতের সময় কমে যাচ্ছে। জানুয়ারির প্রথম ধাপে শীত কেবল পড়তে শুরু করেছে। দিনে রাতে সর্বেচ্চ এবং সর্বনি¤্ন তাপমাত্রা কমে আসলে শীতের অনুভূতি বাড়বে। সামনে কয়েকটি শৈত প্রবাহ আসছে। আশাকরা যায় ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত শীত থাকবে।

খবরঃ দৈনিক সানশাইন

1 thought on “ঘন কুয়াশা রাজশাহীতে বাড়ছে শীতের তীব্রতা, কাহিল রাতের যাত্রী, ছিন্নমুল মানুষ

Comments are closed.