ছেলেদের ত্বকের যতœ

জীবনযাপন

মেয়েদের পাশাপাশি ছেলেদের ত্বকের জন্যও প্রয়োজন নিয়মিত যতœ। কেননা নানা কাজে ছেলেদের অধিকাংশ সময়ই ঘরের বাইরে থাকতে হয়। ফলে রোদ আর ধুলাবালি ছেলেদের ত্বককে খুব সহজেই রুক্ষ করে তোলে। পরামর্শ দিয়েছেন মেনস ক্লাব এক্সক্লুসিভ স্যালুনের বিউটি এক্সপার্ট মো. জামান। লিখেছেন আমান উল্লাহ ত্বক ভালো রাখতে দিনে বেশ কয়েকবার ঠা-া পানি দিয়ে মুখ ধোয়ার পাশাপাশি অন্তত দুবার ত্বক বুঝে ভালো ব্র্যান্ডের ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। ত্বক পরিষ্কার রাখতে নিয়মিত ক্লিনজিং, স্ক্রাবিং, ময়েশ্চারাইজিং ও ফেসিয়াল করুন। আর এসব করতে যে সব সময় পার্লারে যেতে হবে তা কিন্তু নয়। আপনি চাইলে ঘরে বসেও প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে নিয়মিত ক্লিনজিং, স্ক্রাবিং, ময়েশ্চারাইজিং ও ফেসিয়াল করতে পারেন।ক্লিনজার ত্বকের লোমকূপের গোড়ায় জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করতে এবং স্বাভাবিকভাবে ত্বকে যে ঘাম, রস, তেল নিঃসৃত হয় তা তুলে ফেলতে যে পদ্ধতি অনুসরণ করা হয় তাকে ক্লিনজিং বলা হয়। ঘরে বসেই ত্বক ক্লিনজিং করতে এক টেবিল চামচ করে আঙুরের রস, পুদিনা পাতার রস ও লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এবার প্যাকটি মুখে ও ঘাড়ে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠা-া পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ত্বকের জেল্লা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বক নরম ও কোমল হবে। প্রতিদিনই ত্বক ক্লিনজিং করতে চেষ্টা করুন। স্ক্রাবার ঘরে বসেই প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে আপনি ত্বকের গভীরে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করতে স্ক্রাবিং করতে পারেন। নিজেকে করে তুলতে পারেন ফ্রেশ ত্বকের অধিকারী। স্ক্রাবিং করতে গমের ভুসির সঙ্গে এক টেবিল চামচ জলপাই তেল ও আধা চামচ দানা গুড় মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এবার প্যাকটি মুখে বৃত্তাকারে ঘষে লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট পর ঠা-া পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে স্ক্রাবের ভেতর থাকা দানাদার উপাদান ত্বকের নিচের মৃত কোষ সরিয়ে লাবণ্যতা ফিরিয়ে আনবে। ব্ল্যাক হেডস তৈরি হওয়ার আশঙ্কা কমে যাবে। তবে প্রতিদিন ত্বকে স্ক্রাব ব্যবহার করা উচিত নয়। এতে ত্বক রুক্ষ ও খসখসে হয়ে যেতে পারে। সপ্তাহে দুদিন স্ক্রাব ব্যবহার করুন।

ময়েশ্চারাইজার
হারানো আদ্রতা ফিরিয়ে আনতে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য অয়েল বেজড ময়েশ্চারাইজার আর যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের জন্য ওয়াটার বেজড ময়েশ্চারাইজার। প্রাকৃতিক উপাদান যেমনÑ সামুদ্রিক লবণ, অ্যালোভেরা, ভিটামিনসমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজারও খুব উপকারী। ডিপ ক্লিনজিং বা শেভিংয়ের পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারেন।

ফেসিয়াল
সুন্দর ত্বকের জন্য ফেসিয়ালের বিকল্প নেই। ফেসিয়াল ত্বকের ওপরের মরা কোষ সরিয়ে ত্বক সুন্দর ও লাবণ্যময় করে তোলে। ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে এনে দ্রুত নতুন কোষ তৈরিতে সাহায্য করে। গাঢ় দাগ, ব্রণ, ত্বকের রং ফিরিয়ে আনা এবং নিস্তেজতার মতো অনেক সমস্যাই দূর করে ফেসিয়াল। ঘরে বসেই ফেসিয়াল করতে প্রথমেই ত্বক টোনার দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। এরপর মিল্ক ক্লিনজিং ও স্ক্রাব ক্রিম লাগিয়ে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এরপর মাসাজ ক্রিম দিয়ে ১০ মিনিট মাসাজ করে মুখ মুছে গরম পানির ভাপ নিন। সব শেষে ত্বকের উপযোগী ফেসিয়াল প্যাক লাগিয়ে নিন। মাসে অন্তত দুবার ফেসিয়াল করুন।
ত্বক পরিচর্যার পাশাপাশি খাবার-দাবারের প্রতিও সচেতন হোন। তাহলেই সব ঋতুতেই আপনার ত্বক থাকবে সুস্থ ও সুন্দর।