জনগণের আমানত হেফাজতের দায়িত্ব প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের: রাজশাহীতে রফিকুল ইসলাম

রাজশাহী

নির্বাচন কমিশনার রফিকিুল ইসলাম বলেছেন, জনগণের আমানত হেফাজতের জন্য প্রিজাইডিং অফিসারদের দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে। এদায়িত্ব পালনে ইসি সব ধরণের সহযোগীতা করবে। তবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আপনাদের দ্বারা যদি কোন অনিষ্ট হয় তবে ছাড় দেয়া হবে না।

সোমবার সকালে আসন্ন রাসিক নির্বাচন উপলক্ষে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুুুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথাগুলো বলেন। রাজশাহী নগরীর সরকারী মডেল স্কুল এন্ড কলেজে দিনব্যাপি এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা সৈয়দ আমিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অয়োজিত অনুষ্ঠানে রাসিক নির্বাচনের ১৩৮টি ভোট কেন্দ্রের সকল প্রশিক্ষণার্থী প্রজাইডিং কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলন।
ইসি রফিকিুল ইসলাম প্রশাক্ষণার্থী প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের মূল কাজ হল ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ ও দিন শেষ ব্যালট বাক্সের ভোটগুলো গণনা করে রেজাল্ট দেয়া। আর একাজে সবরকম সহযোগীতা ও সরঞ্জাম দিবে ইসি।
নির্বাচন কমিশন কওকে ছাড় দিতে রাজি নয় উল্লখ করে তিনি আরো বলেন, আমাদের কাছে সকল প্রার্থিই সমান। আমরা গ্রহণযোগ্য আইনানুগ নির্বাচন করতে চাই। আর একাজে প্রতিবন্ধকতা আসলে আইনের ব্যবহারে পিছপা হবে না নির্বাচন কমিশন। সম্প্রতি নির্বাচনী দায়িত্বে অবহেলার জন্য আমাদের অভিযোগের প্রক্ষিতে এসপি, এসপিকেও সাসপেন্ড করা হয়েছে।
গণমাধ্যমগুলোতে ইসি’র সমালোচনার প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা আক্রান্ত হই জনগণের দ্বারা, প্রার্থীদের দ্বারা। গণমাধ্যমে বলাহচ্ছে অযোগ্য ইসি। তবে এ দায়িত্ব শুধু আমরা একাই পালন করি না। প্রতিটি কেন্দ্রেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যবৃন্দও উপস্থিত থাকেন। তাদেরও দায়িত্ব রয়েছে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ ডেইলি সানশাইন