জাতীয় পরিচয়পত্র নবায়নের ফি ধার্য

অন্যান্য খবর জাতীয়

নবায়ন বা হারানো কার্ড উত্তোলনের দিন শেষ হলো। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকেই এসব কাজের জন্য টাকা দিতে হচ্ছে। এক্ষেত্রে ফি হিসেবে ১শ’ টাকা থেকে ১ হাজার টাকা গুনতে হবে ভোটারদের। সোমবার এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপনের গেজেট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন ইসি।

প্রজ্ঞাপনে ১ সেপ্টেম্বর থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র নবায়ন এবং হারানো বা নষ্ট হলে নতুন জাতীয় পরিচয়পত্র নেয়ার জন্য আলাদা আলাদা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

পরিচয়পত্র নবায়ন করতে সাধারণ ১শ’ টাকা ও জরুরি ১৫০ টাকা দিতে হবে। হারিয়ে ফেললে বা নষ্ট হলে নতুন পরিচয়পত্র নিতে প্রথমবার আবেদনে ২শ’ টাকা, জরুরি ভিত্তিতে ৩শ’ টাকা। দ্বিতীয়বার আবেদনে ৩শ’ টাকা জরুরি ভিত্তিতে ৫শ’ এবং পরবর্তী যে কোনো আবেদনে ৫শ’ টাকা ও জরুরি প্রয়োজনে ১ হাজার টাকা।

বর্তমানে ৯ কোটি ৬২ লাখেরও বেশি ভোটারের জাতীয় পরিচয়পত্র রয়েছে। তাদেরকে বিনামূল্যে লেমিনেটে পরিচয়পত্র দেয়া হয়। এর মেয়াদ রয়েছে ১৫ বছর। এ সময়ের পরেই নবায়ন করা যাবে এ পরিচয়পত্র।

তবে হারানো বা নষ্ট হলে গেলে ডুপ্লিকেট পরিচয়পত্র সংগ্রহে ইসির পরিচয় নিবন্ধন অনু-বিভাগে আবেদন করতে হয়। এ আবেদনের মাধ্যমে এতদিন বিনামূল্যে পরিচয়পত্র সংগ্রহ করা যেত। এখন থেকে নির্ধারিত ফি ইসি সচিব বরাবর পে-অর্ডার বা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে জমা দিয়ে পরিচয়পত্র সংগ্রহ করতে হবে।

এদিকে প্রাতিষ্ঠানিক সংস্থা বা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এককালিন চুক্তির ফি’র প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে নিবন্ধনের মাধ্যমে ১ সেপ্টেম্বর থেকে তথ্য যাচাই করার জন্য ইসিকে এককালিন ৫ লাখ টাকা দিতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সাল থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার প্রকল্প হাতে নেয় নির্বাচন কমিশন। এখন পর্যন্ত ৯ কোটি ২০ লাখ নাগরিককে জাতীয় পরিচয়পত্র সরবরাহ করেছে ইসি।

1 thought on “জাতীয় পরিচয়পত্র নবায়নের ফি ধার্য

Comments are closed.