ঝড়ে ঝরে পড়েছে ৩০০ কোটি টাকার আম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নওগাঁ নাটোর রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ

সম্প্রতি আঘাত হেনেছে সুপার সাইক্লোন আম্ফান। এরপর কালবৈশাখীর তাণ্ডব। এভাবে একের পর এক ঝড়ে ঝরে পড়ছে আম। এতে চিন্তিত বৃহত্তর রাজশাহী অঞ্চলের আম বাগানের মালিকরা।

ঘূর্ণিঝড় আম্ফান ও বুধবারের (২৭ মে) কালবৈশাখী ঝড়ে প্রায় ৫ থেকে ১৫ ভাগ আম নষ্ট হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফল গবেষণার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা।

কৃষি বিভাগের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর ও নওগাঁয় যে পরিমাণ আম ঝরে পড়েছে তার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় তিনশো কোটি টাকা।

তবে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, এখনও যে পরিমাণ আম বাগানগুলোতে আছে তা সঠিকভাবে পরিচর্যা করে বাজারজাত করলে ভালো দাম পাবে বাগান মালিকরা।

রাজশাহী কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়, বৃহত্তর রাজশাহী অঞ্চলের বাগানগুলোতে এবার আমের মুকুল কিছুটা কম এসেছিল। সে অনুযায়ী আমের উৎপাদনও কম হয়েছে। তার ওপর ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে বহু গাছ উপড়ে পড়ে ডালপালা ভেঙে গেছে।

সম্প্রতি আঘাত হেনেছে সুপার সাইক্লোন আম্ফান। ওই সময় আম্ফানের তাণ্ডবে আমের বিরাট একটা অংশ ঝরে যায়। গতরাতের কালবৈশাখী ঝড়েও অনেক আম পড়ে গেছে। এই অবস্থায় আম বাগানের মালিকরা বলছেন, তারা এমনিতেই করোনাভাইরাসের কারণে আম বাজারজাতকরণ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন। তার ওপর একের পর এক ঝড়ের তাণ্ডব তাদের চিন্তা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে।

রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আলিম উদ্দিন জানান, ঝড়ে ১৫ শতাংশ আম ঝরে পড়েছে।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক সুধীন্দ্রনাথ রায় বলেন, এখনো বাগানগুলোতে যে পরিমাণ আম আছে তা সঠিকভাবে পরিচর্যা ও বাজারজাত করতে পারলে ভালো দাম পাবেন বাগান মালিকরা।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ জাগোনিউজ২৪