ঢাকার চেয়ে কম দামে মাংস বিক্রি করতে হবে রাজশাহীতে

রাজশাহী

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার শফিকুল ইসলাম বলেছেন, পবিত্র রমজান উপলক্ষে ঢাকায় বেঁধে দেওয়া দামের চেয়ে প্রতি কেজিতে ২৫ টাকা কমে গরুর মাংস বিক্রি করতে হবে রাজশাহীতে। এই মহানগরে ৪৫০ টাকার বেশি দামে গরুর মাংস বিক্রি করা যাবে না।

আজ শনিবার সকালে আরএমপির সদর দপ্তরে প্রশাসনের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এই কথা বলেন কমিশনার।

রমজান উপলক্ষে ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে গরুর মাংসের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে কেজিতে ৪৭৫ টাকা। সেই দামের চেয়ে রাজশাহীতে কেজিতে কম রাখতে হবে বলে সতর্ক করে দেন আরএমপি কমিশনার। একই সঙ্গে পুরো রমজানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে থাকবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

পবিত্র রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন মার্কেটের ব্যবসায়ী সংগঠন, রাজশাহী চেম্বার, পরিবহন সংগঠন ও ভোক্তা অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে মহানগর পুলিশ। এতে  আরএমপির কমিশনার শফিকুল ইসলাম বলেন, রমজান মাসে কোনো ব্যবসায়ী ও নাগরিকের নিরাপত্তাহীনতার কথা শোনা মাত্র ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ব্যবসায়ী ও জনসাধারণকে এ বিষয়ে সচেতন করা হচ্ছে। এ বিষয়ে নগরীতে পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং ও প্রচারপত্র বিলি করা হবে।

শফিকুল ইসলাম বলেন, রমজানে ফুটপাতে কোনো দোকান বসবে না। ফুটপাত ও রাস্তার ওপর ইফতারি তৈরি ও বিক্রি করা যাবে না। যেখানে-সেখানে গাড়ি রাখা যাবে না। দিনের বেলা শহরে ভারী যানবাহন প্রবেশ করবে না। পরিবহনে বেশি ভাড়া নেওয়া যাবে না। এগুলো নিয়ন্ত্রণের জন্য মহানগর পুলিশের সব সদস্যকে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে আরএমপির কমিশনার বলেন, রমজানে রাজশাহীতে গরুর মাংসের দাম ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখতে রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক)ও পণ্যের মান নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান বিএসটিআইয়ের কর্মকর্তাদের বাজারে বাজারে তালিকা টাঙানোর ব্যবস্থা করতে হবে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, রমজান মাসে ছিনতাই, চুরি ও চাঁদাবাজি বন্ধে সাদা পোশাকে পুলিশের নজরদারি বাড়ানো হবে। এ সময় কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণে পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি। এ ক্ষেত্রে দায়িত্বে অবহেলা পেলে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

রমজানে আতশবাজি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে পুলিশ কমিশনার ব্যবসায়ীদের বিস্ফোরক জাতীয় কোনো দ্রব্য (পটকা) ক্রয়-বিক্রয় না করার আহ্বান জানান।

মতবিনিময়ের সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মনিরুজ্জামান মনিসহ ব্যবসায়ী নেতা, পুলিশ, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব), বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), সিটি করপোরেশন, বিএসটিআইয়ের কর্মকর্তা ও সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা।

খবরঃ এনটিভি

10 thoughts on “ঢাকার চেয়ে কম দামে মাংস বিক্রি করতে হবে রাজশাহীতে

Comments are closed.