তরুণীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও করে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার ৩

পুঠিয়া রাজশাহী

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে কিশোর অপরাধচক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (৬ অক্টোবর) সকালে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তারা এক যুবককে তুলে নিয়ে গিয়ে তরুণীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করেছিলেন। এর পর তার কাছে চাঁদা দাবি করেন। এমন অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- পুঠিয়া উপজেলার পালোপাড়া গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেল রাকিবুল হাসান রকি, বাড়ইপাড়া গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে আমিনুল ইসলাম তন্ময়, সরদারপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে এসএম হাসিবুল হাসান।

এই নিয়ে রোববার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেন রাজশাহী পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহিদুল্লাহ। সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, শনিবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে শামীম তার দুই বন্ধুর সঙ্গে পুঠিয়ার গাওপাড়া ঢালানের একটি কালভার্টে বসেছিলো। তারা আড্ডা দেওয়ার এক সময় রকি, তন্ময়, হাসিবুলসহ আরও কয়েকজন সেখানে গিয়ে শামীম ও তার বন্ধুদের এলোপাথাড়ি পেটাতে থাকে। একপর্যায়ে শামীমকে পাশের একটি পরিত্যক্ত ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে একটি ঘরে ঢুকিয়ে এক তরুণীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে। ভিডিও ধারণ শেষে শামীমের কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না দিলে পুলিশ ও পরিবারের কাছে ভিডিও দেওয়ার হুমকি দেয়। কিন্তু কৌশলে শামীম সেখান থেকে পালিয়ে এসে পুঠিয়া থানায় অভিযোগ দেয়। পরে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে বলেও জানান এসপি।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে দীর্ঘদিন থেকে তারা এমন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত বলে স্বীকার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে পুঠিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় আজই তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ