দুঃসাহসিক সেলফি (ভিডিও)

তথ্য প্রযুক্তি বিচিত্র

এখন সেলফির যুগ। ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, গুগল প্লাস খুললেই দেখা যায় নানা ধরনের সেলফি। যে যখন যে অবস্থায় থাকেন, সেই অবস্থায় সেলফি তুলে দেখা যায় শেয়ার করতে। তবে অনেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়েও দু:সাহসিক সেলফি তুলে থাকেন।

 

সেলফির যুগে দুঃসাহসিক সেলফি তোলার ঘটনা ক্রমশ বাড়ছে। যেমন সম্প্রতি তুরস্কের পাভেল স্মিরনভ এবং অজকান ইপার নামক দুই তরুণের বিপদজনক দুঃসাহসিক সেলফি দেখে বিস্মিত সোশ্যাল মিডিয়া। ১১৫০ ফুট উঁচুতে উঠে সেলফি তোলা? এরকম কথা ভাবা যায়! অথচ তুরস্কের এই দুই বন্ধু এমন কাণ্ডই ঘটিয়েছে।

 

ইন্ডিপেন্ডেন্ট-এর খবরে বলা হয়েছে, বেপরোয়া এই দুই সেলফিপ্রেমী তুরস্কের ইস্তানবুলে নির্মানাধীন ১১৫০ ফুট উচু সেতুর চূড়ায় উঠে সেলফি তুলে শোরগোল ফেলে দিয়েছে দেশজুড়ে। দুঃসাহসিক এই সেলফির বিপদজনক বিষয়টি হচ্ছে, ১১৫০ ফুট উচু সেতুর চূড়ায় কোনো রকম রোপ বা বিশেষ নিরাপত্তা সামগ্রী ছাড়াই আরোহন করে সেলফি তুলে তারা।

 

সেতুটি নির্মানাধীন থাকায়, এটিতে উঠে কেউ যেন সেলফি তুলতে না পারে, সেজন্য প্রশাসনের কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষীদের লাঞ্চ ব্রেকের সময় অগোচরে ১১৫০ ফুট উচু সেতুর ওপরে নিজেদের সেলফি ভিডিও রেকর্ড করেন পাভেল স্মিরনভ এবং অজকান ইপার।

 

এদিকে বিপজ্জনক সীমা অতিক্রম করায় এই বন্ধুকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে জানা গেছে।

 

দেখুন দুঃসাহসিক সেলফি ভিডিওটি