নাটোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ৪, আহত ৬

নাটোর রাজশাহী বিভাগ

নাটোরের সিংড়ায় নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের শেরকোল পাঁচবাড়িয়া এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৬ জন।

নিহতরা হলো মাইক্রোবাসের চালক শিবগঞ্জ বগুড়ার পিন্টু, মাইক্রোযাত্রী দিনাজপুরের জহুরুল ইসলাম, বগুড়ার শিশু হাসান ঘটনাস্থলে মারা যায়। শনিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এর আগে সকাল ৭টার দিকে নাটোর শহরের বাইপাস এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের ছাদ থেকে পড়ে নাটোরের বনবেলঘরিয়া এলাকার মর্তুজা নামে এক বাসযাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বাস ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে দুইজনকে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাকীদের স্থানীয় প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে নিহতদের নাম পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। ঝলমলিয়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম জানান,

রাজশাহী থেকে রংপুরগামী হৃদয় পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস শেরকোল পাঁচবাড়িয়া এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে মাইক্রোবাসের চালক পিন্টুর (২৫) মৃত্যু হয়।

আহতদের মধ্যে তিনজনকে নাটোর সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে শিশুসহ দুজন মারা যায়। নিহতের লাশ উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান পুলিশ।

সংবাদ পেয়ে সিংড়ায় অবস্থানরত তথ্য ও যোগাযোগ (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে হতাহতদের উদ্ধার ও চিকিৎসার খবর নেন।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন