নাটোরে যুবলীগ কর্মী খুন

নাটোর রাজশাহী বিভাগ

নাটোরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত জনি (১৮) নামে এক যুবলীগ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে শহরের তেবাড়িয়া এলাকায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত জনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। নিহত জনি শহরের মল্লিকহাটি এলাকার বাচ্চুর ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানাযায়, মঙ্গলবার বিকেল ৪ টার দিকে জনি বাড়ি থেকে বের হয়ে পাশের তেবাড়িয়া হাট এলাকায় যায়। এসময় ওই এলাকায় গােয়েন্দা পুলিশের একটি দল কালু নামে জনৈক মাদক বিক্রেতাকে ধরে নিয়ে যায়। গোয়েন্দা পুলিশের দলটি এলাকা থেকে চলে যাওয়ার পর একদল যুবক অর্তকিতে জনির ওপর চড়াও হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করা সহ বেধড়ক মারপিট করে। স্থানীয়রা তাকে প্রথমে নাটোর সদর ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯ টার দিকে সে মারা যায়।

স্থানীয়দের ধারনা আটক মাদক বিক্রেতাকে চিনিয়ে দেওয়া বা তার নাম বলেছে এমন সন্দেহ করে মাদক চক্র জনির ওপর হামলা চালায়।

নাটোর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি আব্দুল হাই বলেন, জনির ওপর হামলার ঘটনাটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। মাদক চক্রকে ধরিয়ে দেওয়া বা জানানোর বিষয়টি সঠিক নয়। পুর্ব বিরোধের কারনে এই হামলার ঘটনা ঘটে থাকতে পারে এবং তেবাড়িয়া এলাকার কয়েকজন যুবকের হামলায় আহত হয় সে এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জনির মৃত্যু হয় বলে তিনি নিশ্চিত করেন।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন

1 thought on “নাটোরে যুবলীগ কর্মী খুন

Comments are closed.