নারীর হাসিতেও যৌনতার গন্ধ খোঁজে পুরুষ!

অন্যান্য খবর শ্রেণিহীন

নারীর যৌনাকাঙ্ক্ষা নিয়ে পুরুষের ভাবনা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভুল! এ কথা গবেষণা প্রসূত। ধরুন বারে ঢুকলো একটি পুরুষ। ঢুকেই চোখে পড়লো এক সুন্দরী নারী। চোখাচোখি হতেই সুন্দর একটি হাসি ছড়িয়ে দিলো নারীটি। অমনি পুরুষটি ভেবে বসলো সে বুঝি তাতে মজে গেছে। রাতেই বিছানায় নিয়ে নেওয়া যাবে এই নারীকে। সত্যি হচ্ছে- এসবই পুরুষের মস্তিষ্ক প্রসূত। গবেষণা বলছে, যৌনতা নিয়ে নারীদের মনের ভেতরের কথাটি পুরুষরা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বুঝতে ভুল করে। আর কয়েক পেগ ওয়াইন পেটে পড়ার পরেতো আর কথাই নেই।

নতুন গবেষণা বলছে আরও নতুন কিছু। দেখা গেছে, পুরুষের মধ্যে তার নিজের ব্যক্তিত্ব, রোমান্স, আর সম্পর্ক তৈরি দক্ষতা নিয়ে একটু বেশিই আত্মবিশ্বাস থাকে।

নিউইয়র্কের ইউনিয়ন কলেজের গবেষকরা ৫০০ পুরুষের ওপর এই গবেষণা চালিয়েছে। তার জন্য প্রত্যেককেই গোপনে নাইট ক্লাবে সুন্দরীর নারীর চাহুনিতে ঘায়েল করার ফাঁদ পাততে হয়েছে। তবে ৫০০ জনের ক্ষেত্রেই ছিলো এক নারী। এরপর পুরুষদের কাছে জানতে চাওয়া হয় ওই নারীর অভিব্যক্তি তাদের মনের কোনে কি ধারণা তৈরি করে। বিছানায় যেতে নারীটিকে আদৌ আগ্রহী মনে হয়নি থেকে ভীষণ আগ্রহী মনে হয়েছে পর্যন্ত উত্তর দেওয়ার সুযোগ ছিলো। আর অধিকাংশ পুরুষই মনে করেছে এই নারী তার যৌনাকাঙ্ক্ষা দেখাচ্ছে।

গবেষণাপত্রের প্রধান রচয়িতা ও কলেজের মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জশুয়া হার্ট মনে করেন, এর অন্যতম কারণই হচ্ছে পুরুষরা খুব নারীসঙ্গ চায়। তাদের যৌনাকাঙ্ক্ষাও প্রকট আর তাদের প্রত্যাশাই থাকে নারীরা তাদের উপর মজে এগিয়ে আসবে।

আসলে আমরা তাই দেখি যা আমরা দেখতে চাই, আসলটা কি তা আমরা বুঝতে চাই না, বলেন জশুয়া হার্ট।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/465244.html