পদ্মায় নিখোঁজ রাজশাহী কলেজ ছাত্র মিনহাজ হোসেনের মরদেহ উদ্ধার

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী কলেজ

রাজশাহীর পদ্মানদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ রাজশাহী কলেজের ছাত্র মিনহাজুল ইসলাম অনির (২২) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (২০ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে মহানগরীর পঞ্চবটি এলাকার পদ্মনদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে সদর দমকল বাহিনীর ডুবুরিরা।

এর আগে শনিবার সকাল থেকে তাকে উদ্ধারে পদ্মানদীতে তল্লাশি শুরু করে দমকল বাহিনীর ডুবুরি ইউনিট। শুক্রবার (১৯ মে) বিকেল ৫টার দিকে তিনি নিখোঁজ হন।

অনি রাজশাহী কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র এবং বগুড়ার লষ্করপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবার নাম সাইফুল ইসলাম। বোয়ালিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান এই তথ্য জানিয়েছেন।

দমকল বাহিনীর বিভাগীয় উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের জানানো হয়েছে। কিন্তু সেসময় তাদের ডুবুরি ইউনিট সিরাজগঞ্জে ছিল বলে অভিযানে দেরি হয়।

মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন খান বলেন, শুক্রবার বিকেলে অনি ও তার তিন বন্ধু মিলে চর পার হয়ে পদ্মানদীতে যান। অতিরিক্ত গরম পড়ায় তারা পদ্মানদীতে গোসল করতে নামেন। গোসলের এক পর্যায়ে ঝড় উঠে। ঝড়ের কবলে পড়ে তারা গভীর পানিতে তলিয়ে যান।

খবরঃ বাংলানিউজ

17 thoughts on “পদ্মায় নিখোঁজ রাজশাহী কলেজ ছাত্র মিনহাজ হোসেনের মরদেহ উদ্ধার

  1. বেশি উশৃঙ্খল হতে হয়না , বন্ধুকে নিয়ে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়েছিল ,ব্ন্ধু ঠিকই উঠে এসেছিল কিন্তু বেচারা মিনহাজ আর উঠতে পারেনি ডুবে গিয়েছিল ,দুইদিন ধরে ডুবুরিরা খুঁজার পর আজ পেল লাশ,সবাইকে মহান রাব্বুল আলামিন হেদায়েত দান করুক ,

Comments are closed.