পদ্মায় নিখোঁজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

রাজশাহী

রাজশাহীর পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থী জাবেদ আলী জনির (২৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (৯ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে রাজশাহী সদর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল তার মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত জনি রাজশাহী কলেজের গণিত বিভাগ থেকে সদ্য অনার্স শেষ করেছেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জে। বাবা ইয়াসিন আলী অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য। তিনি পরিবার নিয়ে রাজশাহী মহানগরের রায়পাড়া এলাকায় থাকেন।

গত রোববার (৮ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক সংলগ্ন আই-বাঁধ এলাকায় বন্ধুর সঙ্গে গোসল করতে নামেন জনি। এ সময় স্রোতের তোড়ে তিনি পানিতে তলিয়ে গেলেও সাঁতরে নদীপাড়ে উঠে আসেন বন্ধু সাজ্জাদ হোসেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, খবর পেয়ে চার সদস্যের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত নদীতে অভিযান চালায় তারা। পরে অন্ধকারের কারণে অভিযান স্থগিত করা হয়।

সোমবার (৯ আগস্ট) সকালে আবারও উদ্ধার অভিযান শুরু হলে একপর্যায়ে জনির মরদেহ পাওয়া যায়।

রাজশাহী সদর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স দপ্তরের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবদুর রউফ বাংলানিউজকে বলেন, যেখানে ডুবেছিল ঠিক সেখানেই জনির মরদেহ মিলেছে। তার মরদেহ কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজশাহী মহানগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম মাসুদ পারভেজ বাংলানিউজকে বলেন, ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এক ছাত্রের মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ