পরিবেশবান্ধব আধুনিক বাড়ি ‍আর্থশিপ

বিচিত্র

দূরে কোথাও ভ্রমণের আগে থাকার ব্যবস্থা করতে হয় সবার আগে। ভ্রমণকালীন সে আবাসিক হোটেলটি যদি হয় খোলা প্রকৃতির মধ্যে, তবে কেমন হয়?

নিউ মেক্সিকোর তাওসের নিকটবর্তী সংরি ডি ক্রিস্টো পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত আর্থশিপকে হোটেল না বলে বাড়ি বলা যেতে পারে। আর্থশিপ একটি ব্যতিক্রমধর্মী সৌরবাড়ি। বাড়ির আগাগোড়া একদম প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরি। মাটিভর্তি গাড়ির টায়ার ও কাচের বোতলের মতো নানারকম পুনর্ব্যবহৃত উপকরণও বাড়ির দেহগড়নের অংশবিশেষ।

আর্থশিপ দেখতে আর দশটা বাড়ির মতো স্বাভাবিক লাগে না। তবে আরামদায়ক। পরিবেশবান্ধব আর্থশিপকে গ্রিডহোম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। অর্থাৎ এটি পানি সরবরাহ, প্রাকৃতিক গ্যাস, বৈদ্যুতিক পাওয়ার গ্রিড বা অন্যান্য অনুরূপ ইউটিলিটি সেবার উপর নির্ভর করে না।

এগুলোর পরিবর্তে বাড়িটি সূর্য থেকে সব শক্তি সঞ্চয় করে। অ‍ার্থশিপের প্রায় বাড়িগুলোই ঘোড়ার খুরের আকৃতিতে তৈরি। এতে সৌরশক্তিকে ভালোভাবে ব্যবহার করা যায়। অন্দরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য বাড়ির দেয়ালগুলোকে বিশেষভ‍াবে নির্মাণ করা হয়েছে। মাটির দেয়ালে গেঁথে দেওয়া হয়েছে গাড়ির বাজেয়াপ্রাপ্ত টায়ার, টিনের ক্যান ও বোতল। এই উপকরণগুলো বিভিন্ন মৌসুমে ঘরের ভেতরের তাপমাত্রা ঠিক রাখে।

সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক পরিবেশে অবস্থান বলে ভাববেন না এখানে আবাসিক হোটেলের বিলাসিতার ছিটেফোঁটা নেই। আর্থশিপের সৌর প্যানেল প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ উৎপন্ন করে। ঘরগুলো আধুনিক আসবাবপত্রে সুসজ্জিত। বিনোদনের জন্য রয়েছে টেলিভিশন ও ওয়াইফাই ব্যবস্থা। আরও বিশেষত্ব হচ্ছে, বাড়ির পাশেই চাষ করা হয় রোজকার ভোজ্য উপাদান।

অতিথিরা ইচ্ছে হলে পোষা কুকুরটিকেও সঙ্গে আনতে পারেন। তার জন্যও রয়েছে সুব্যবস্থা।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।