পুঠিয়া-তাহেরপুর সড়কে ট্রাক-রিকশাভ্যান সংঘর্ষ: নিহত ৭

পুঠিয়া রাজশাহী

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের পুঠিয়া-তাহেরপুর সড়কের তেবাড়িয়া নামক স্থানে বালুবাহী ট্রাক ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যানকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে ছয়জন। পরে হাসপাতালে আরো একজন নিহত হয়। এদের মধ্যে পাঁচজনই একই পরিবারের।

রাজশাহীর পুঠিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- রুদ্র (৬), পূজা (১০), বৃষ্টি (২৬), দীফ (৬), সুমি (২৮), ভ্যানচালক বিদুৎ (৩৫) এবং অপর নারীর নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের বাড়ি উপজেলার জিওপাড়া ইউনিয়নের দাস মাড়িয়া গ্রামে। তারা বাগমারা উপজেলার তাহেরপুরে আত্মীয় বাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে বাড়ি ফিরছিলেন।

রাজশাহীর পুঠিয়ার শিলবাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন মুকুল জানান, ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ট্রাকটি আটক করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় ট্রাকের চালক-হেলপারকে ধরে পিটুনি দিয়েছে স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন মুকুল জানান, পুঠিয়া থেকে তাহেরপুরগামী একটি বালুবাহী ট্রাকের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ছয়জন। এদের মধ্যে একই পরিবারের ৫ জন রয়েছে।

পরে সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুঠিয়া থানা পুলিশ ও দমকল কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্রাকের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। হেলপার ও চালককে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। হাফিজুর রহমান জানান, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হবে।