প্রথম দিনেই ধুমকেতুসহ সবক’টি ট্রেনেই শিডিউল বিপর্যয়: দেরিতে ছাড়ছে ট্রেন

জাতীয়

ঈদে যাত্রী সেবা শুরুর প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয়ে পড়েছে রেলওয়ে। নির্ধারিত সময়ের চেয়ে দেরিতে কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে ছাড়ছে বিভিন্ন গন্তব্যের ট্রেন। ফলে যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

যারা ২২ মে প্রথম দিন আগাম টিকিট কেটেছেন, তারাই শুক্রবার (৩১ মে) বিভিন্ন গন্তব্যে যাত্রা করছেন। এটি এই ঈদে আগাম টিকিটের প্রথম যাত্রা।

সরেজমিনে শুক্রবার গিয়ে দেখা যায়, রাজশাহীগামী ধুমকেতু ভোর ৬টায় ছেড়ে যাওয়ার নির্ধারিত সময় থাকলেও সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত কমলাপুর ছেড়ে যায়নি। চিলাহাটিগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস সকাল ৮টায় নির্ধারিত সময় থাকলেও সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে ছাড়বে বলে সম্ভাব্য সময় দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রামগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেস সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ছাড়ার নির্ধারিত সময় থাকলে কমলাপুর ছেড়ে যায় সকাল সোয়া ৮টায়। সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে ছাড়ার নির্ধারিত সময় থাকলেও ছেড়ে যায় সাড়ে ৭টায়। রংপুর এক্সপ্রেস সকাল ৯টায় কমলাপুর ছাড়ার নির্ধারিত সময় থাকলেও দুপুর ২টা ১০ মিনিটে ছেড়ে যাবে বলে সম্ভাব্য সময় দেওয়া হয়েছে।

ধুমকেতু এক্সপ্রেসের যাত্রী সাবিনা ইসলাম  বলেন, প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে অপেক্ষা করছি। কিন্তু ট্রেন ছাড়ার কোনো সম্ভাবনা এখনো দেখছি না। অপেক্ষা করতে অসহ্য লাগছে।

কমলাপুর থেকে শুক্রবার ৩৩টি নির্ধারিত আন্ত‍ঃনগর ট্রেন ছেড়ে যাবে বিভিন্ন গন্তব্যে। সবক’টি ট্রেনেই শিডিউল বিপর্যয় দেখা দেবে, কারণ অধিকাংশ ট্রেনই নির্ধারিত সময়ে ঢাকা পৌঁছাতে পারছে না।

কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার মোহাম্মদ আমিনুল হক বাংলানিউজকে বলেন, কিছুটা দেরিতে ট্রেন ছেড়ে যাচ্ছে। তবে আমরা চেষ্টা করছি, যাতে নির্ধারিত সময়ে ট্রেন ছেড়ে যেতে পারে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর