বগুড়ায় হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি

বগুড়া রাজশাহী বিভাগ

বগুড়া সরকারি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের গাইনি ও প্রসূতি বিভাগ থেকে তিন দিন বয়সী এক নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় শনিবার বিকেল ৫টার দিকে সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন শিশুটির বাবা।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের গাইনি ও প্রসূতি বিভাগে ভর্তি হন শহরের ঝোঁপগাড়ি এলাকার রুবেল উদ্দিনের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হোসনে আরা। পরদিন বুধবার সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে তিনি একটি ছেলেশিশুর জন্ম দেন। নবজাতক ওই শিশুটিকে দেখভাল করছিলেন তার মা রেহেনা বেগম।

এদিকে হাসপাতালের এক রোগীর স্বজন সেজে গত কয়েকদিন ধরেই ওই ওয়ার্ডে অবস্থান করছিলেন ২৫ বছর বয়সী এক তরুণী। ওই তরুণী হোসনে আরা ও তার মায়ের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলেন।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নবজাতককে নিয়ে বারান্দায় রোদ পোহাতে যান মা রেহেনা বেগম। এ সময় তরুণীও তার সঙ্গে যান।

এ সময় শিশুটি পায়খানা করলে শিশুটিকে অপরিচিত ওই তরুণীর কাছে রেখে রেহেনা বেগম কাপড় আনতে যান। পরে এসে দেখে ওই তরুণীও নেই, নিজের নাতিও নেই। এরপর গোটা হাসপাতাল খুঁজে আর পাওয়া যায়নি নবজাতক আর তরুণীকে। ওই তরুণীর পরিচয়ও কেউ বলতে পারেনি।

নবজাতকের বাবা রুবেল উদ্দিন বলেন, সংসারে প্রথম সন্তানের জন্ম হওয়ায় সবাই খুব খুশি ছিলাম। আজকেই বাচ্চার নাম রাখার কথা ছিল। কিন্তু এর আগেই ছেলে চুরি হয়ে গেল।

তিনি মোবাইল ফোনে সন্তানের ছবি দেখিয়ে তাকে ফিরে পেতে পুলিশ, সাংবাদিকসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

গাইনি বিভাগের নার্স ইনচার্জ সানজিদা বলেন, ওই তরুণীটি হারানো নবজাতকের পরিবারের সঙ্গে সর্বক্ষণ ছিল। এজন্য তাদের আরো সতর্ক থাকা উচিত ছিল।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক বিধান চন্দ্র মজুমদার বলেন, শিশু চুরির ঘটনাটি পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। শিশুর বাবা রুবেল উদ্দিন থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। আমরাও ওয়ার্ডের দেয়ালে সবাইকে সতর্ক থাকার নোটিশ দিয়েছি।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি-তদন্ত) আসলাম আলী বলেন, এ ঘটনায় শিশুর বাবা রুবেল উদ্দিন থানায় অভিযোগ করেছেন। শিশুটিকে  উদ্ধারের জন্য চেষ্টা চলছে।

 

 

খবরঃ রাইজিংবিডি

1 thought on “বগুড়ায় হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি

Comments are closed.