বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরের অভিযোগে কলেজ অধ্যক্ষ আটক

গোদাগাড়ী রাজশাহী

বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরের অভিযোগে রাজশাহীর গোদাগাড়ীর রাজাবাড়ীহাট ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নীরেন্দ্রনাথ দত্তকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১৯ মার্চ) দুপুরে তাকে আটক করা হয়।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিপজুর আলম মুন্সি জানান, গত বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে কলেজটির ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি শাহাদুল হক মাস্টারের লোকজন কলেজে যান। এ সময় ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নীরেন্দ্রনাথ দত্ত ও প্রভাষক মাহামুদ আক্তারের সঙ্গে কথা কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে সবাইকে সরিয়ে দেয়। সে সময় কোনো ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু ওইদিন রাতে নীরেন্দ্রনাথ দত্ত শাহাদুল হক মাস্টারসহ কয়েকজনের নামে থানায় জিডি করতে যান। বিষয়টি তদন্ত করে কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। তবে শনিবার (১৮ মার্চ) সকালে কলেজের অফিস ঘর খুলে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর করা অবস্থায় পাওয়া যায়।

পরে আওয়ামী লীগ নেতারা বিষয়টি গোদাগাড়ী থানায় জানান। কিন্তু তদন্তের পর পুলিশ প্রমাণ পায়, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে কলেজ অধ্যক্ষ নিজেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভেঙেছেন।

পরে রোববার দুপুরে তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ওসি।

খবরঃ বাংলানিউজ

3 thoughts on “বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরের অভিযোগে কলেজ অধ্যক্ষ আটক

  1. এটা কলেজের দুই গ্রুপের গন্ডোগোল চরম রাজনৌতিক রূপ এটা আগের অধ্যাক্ষ ও সভাপতির দন্দের প্রতিফলন । অযোগ্য ব্যাক্তিকে অধ্যাক্ষ পদে বসানোর জন্য বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যাক্ষকে হেনস্তা করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বৃহস্পতিবারই ভাঙ্গা হয়েছিল যা ভারপ্রাপ্ত অধ্যাক্ষ বৃহস্পতিবারই পূনস্থাপন করা হয়। তার পরেরটা ফাসানোর নাটক।

Comments are closed.