বসন্ত এসে গেছে…

বিচিত্র

শীতে ধুলোর সাগরে নুয়ে পড়া প্রকৃতির ক্লান্তি কেটে গেছে। গাছে গাছে সবুজ পাতা জেগে উঠছে আড়মোড়া ভেঙে। ফুলবাগানে রঙের ছড়াছড়ি। ভোরের হালকা শীতল বাতসে ভর করেছে সোনারোদের একটুখানি উষ্ণতা। নরম উষ্ণতা গায়ে মেখে গলা সাধছে কোকিল।
বসন্ত যে এসে গেছে!

আজ পহেলা ফাল্গুন (শনিবার)। বসন্তের প্রথম দিন। ঋতুরাজ বসন্তের ছোঁয়ায় যৌবনা প্রকৃতির গায়ে যেনো লাগে শিহরণ। এলোপাথাড়ি বাতাসও ছন্দ তুলে নাচতে থাকে এসময়। ছন্দে তাল মেলায় বসন্ত ফুলের সুবাস। বসন্তে শিমুল-পলাশ শাঁখে রক্তিম আভা ছড়ায় সিঁদুরে লাল ফুল। হলদে-বাসন্তী ফুলে ছেয়ে যায় গাঁদা ফুলের গ‍াছ। চন্দ্রমল্লিকা, ডালিয়া, মাধবীলতা আর সন্ধ্যামালতী নিজ নিজ রঙে সেজে ওঠে। কুসমকাননে প্রজাপতি আর ভ্রমরের আনাগোনা। ভালোবাসার এই তো শুরু!

বসন্ত শুধু একটি ঋতুই নয়, এটি ভালোবাসার প্রতীক। নতুন কুঁড়ি, নতুন চাঁদ, নতুন প্রেম, নতুন ভাবনা, নতুন উন্মাদনা আর নতুন উচ্ছ্বাস। পুরোনোকে নতুন করে রাঙিয়ে দিতে ফাল্গুনি রথে চড়ে আসেন বসন্তদেব।

বসন্ত উৎসবের ঋতু। ভারতীয় উপমহাদেশের অনতম জনপ্রিয় বসন্ত উৎসব হচ্ছে হোলি বা দোলযাত্রা। ফাল্গুনি পূর্ণিমা তিথিতে হোলি খেলা হয়।

পুরাণ অনুযায়ী, ফাল্গুনি পূর্ণিমার দিন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ বৃন্দাবনে  আবির ও গুলাল নিয়ে রাধা ও গোপীদের সঙ্গে রং খেলায় মেতেছিলেন। সেই থেকে বসন্তের নতুন চাঁদের এ দিনে নানা রঙের আবির ছড়িয়ে হোলি খেলা হয়।

এবারের বসন্ত প্রত্যেকের জীবনে বয়ে আনুক পরম আশির্বাদ, পূর্ণতা ও সুখ। বসন্ত বিরাজ করুক সবার মনে।

শুভ বসন্ত।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/465274.html