বাগমারার তিন লাখ জনগণ পাচ্ছেন বিদ্যুতের সুবিধা

বাগমারা রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টার: বর্তমান সরকারের আমলে বাগমারায় বড় সাফল্যের মধ্যে রয়েছে বিদ্যুৎ। বর্তমান সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের নির্বাচনী অঙ্গিকারের মধ্যে ছিল বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান। এ সমস্যার অনেকটাই সমাধান করেছেন। এখন দুর্গম এলাকায় পৌঁছে গেছে বিদ্যুৎ। বাড়ি বাড়ি জ্বলছে বিদ্যুতের আলো।

মাত্র আট বছর আগে ওইসব এলাকায় বিদ্যুৎ ছিল সোনার হরিণ, স্বপ্নের মতো। বিগত জোট সরকারের আমলে টাকার বিনিময়ে স্থাপন করা তারবিহীন পোলগুলোর দিকে চেয়ে কেটেছে বিএনপির দুঃশাসনের পাঁচ বছর। বর্তমান সরকারের আমলে উন্নতি হয়েছে বিদ্যুৎ ব্যবস্থার।

জোট সরকারের আমলে বিদ্যুৎ সুবিধা পেয়েছেন মাত্র ৯ হাজার ৫৭২ জন গ্রাহক, আর এ সরকারের সময়ে সুবিধা পেয়েছেন ৬৭ হাজার ১৫২ জন। সাংসদ এনামুল হকের প্রচেষ্টায় উপজেলার ৫০ হাজার ২৭টি পরিবারকে বিদ্যুতের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। উপজেলার প্রায় তিন লাখ লোক বিদ্যুতের সুবিধা সরাসরি ভোগ করছেন।

সাংসদের চেষ্টায় লোডশেডিং কমানো হয়েছে। এলাকাবাসীর বিদ্যুৎ চাহিদা নিশ্চিত করতে ভবানীগঞ্জ উপকেন্দ্রের ক্ষমতা ৫ এমভিএ থেকে বাড়িয়ে ৩০ এমভিএ করা হয়েছে।

এছাড়া আরো ১০ এমভি অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য হাটগাঙ্গোপাড়ায় স্থাপন করা হয়েছে ১০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র। সাংসদ এ সমস্য সমাধানের জন্য কাটাখালিতে স্থাপন করা হয়েছে ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। এর সুফলের বেশিভাগ সুবিধা ভোগ করছেন বাগমারাবাসী।

সাংসদের নিজস্ব বরাদ্দ থেকে ৬৫০ কিলোমিটার নতুন লাইন স্থাপন করা হয়েছে। আরো ২০ কিলোমিটার লাইন সম্প্রসারণের প্রক্রিয়ায় রয়েছে। এছাড়াও সংষ্কার করা হয়েছে লাইনের। এছাড়াও উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নিজ উদ্যোগে লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করেছেন সাংসদ এনামুল হক। ভবানীগঞ্জ, হাটগাঙ্গোপাড়া, শিকদারী, যাত্রাগাছি, গোয়ালকান্দি, মচমইল বাজারসহ ৪৬টি স্থানে লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন

3 thoughts on “বাগমারার তিন লাখ জনগণ পাচ্ছেন বিদ্যুতের সুবিধা

Comments are closed.