বাগমারায় পুকুর থেকে বৃদ্ধের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার’দুইজন গ্রেপ্তার

বাগমারা রাজশাহী

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার বড় বিহানালী ইউনিয়নের গুইয়াবাড়ী গ্রামের একটি পুকুর থেকে ভাসমান অবস্থায় ভ্যানগাড়ী চালক এক বৃদ্ধের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দুুপুরে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যক্তির নাম আনিসুর রহমান (৬৫)।

তার বাবার নাম মৃত মহির উদ্দিন। বাড়ি থেকে মাত্র ২০০ গজ দূরের একটি পুকুরে লাশ বস্তাবন্দি অবস্থায় ভেসে উঠতে দেখে স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। তবে তাকে দুই তিন দিন আগে হত্যা করে লাশটি হয়তো কেবাকারা পুকুরে ফেলে রেখে যায় বলে পুলিশ ধারণা করছে।

এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্ত্রী জহুরা বেগম এবং ছেলে সাইদুল ইসলামকে জিজ্ঞাবাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহত আনিসুর রহমানের স্ত্রী জহুরা বেগম জানান,শুক্রবার ভোরে তিনি আমার সাথে ফজরের নামাজ আদায় করে তিনি বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি।

বিকেলে স্থানীয় লোকজন বাঘাবাড়ি গ্রামের ইউপি সদস্য ইসাহাক আলীর পুকুরের পানিতে বস্তাবন্দী লাশটি ভাসতে দেখে আমাদেরকে খবর দেয়। সঙ্গে সঙ্গে আমি ও আমার ছেলে ঘটনাস্থলে এসে লাশটি আমার স্বামীর শনাক্ত করি।

এবিষয়ে বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ জানান, দুুপুরে বড় বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদের৫মেম্বার ইসাহাক আলীর পুকুরে বস্তাবন্দী একটি লাশ ভেসে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। এসময় বস্তার ভেতর থেকে একটি হাত বের হয়ে ছিল।

পরে ইউপি চেয়ারম্যান জানতে পেরে থানায় পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে বিকেল ৪টার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে। এবং খুনিরা আনিছুর রহমানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশটি পুকুরে ফেলে গিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আনিসুর রহমানের শরীরের কোনো স্থানে ক্ষত বা আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্ত্রী জহুরা বেগম এবং ছেলে সাইদুল ইসলামকে জিজ্ঞাবাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এব্যাপারে থানায় এখনো মামলা দায়ের করা হয়নি বলে ওসি জানান।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন

1 thought on “বাগমারায় পুকুর থেকে বৃদ্ধের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার’দুইজন গ্রেপ্তার

Comments are closed.