বাগমারায় বন্যায় ডুবেছে সাড়ে পাঁচ হাজার হেক্টর আমনক্ষেত

বাগমারা রাজশাহী

বাগমারায় বন্যায় অব্যাহত পানি বৃদ্ধিতে সাড়ে পাঁচ হাজার আমন ক্ষেত তলিয়ে গেছে। এতে ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতিকালে বন্যায় উপজেলার আটটি ইউনিয়নের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ফকিরনী নদীর পানি ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের বোড়ী বাঁধের চারটি স্থানে ভাঙ্গনের কারণে ওই সব ইউনিয়নের প্রায় বারটি বিলে পানি প্রবেশ করায় বিলগুলোতে উড়তি আমন ক্ষেত তলিয়ে গেছে।

বিলগুলোতে প্রায় সাড়ে আট হাজার হেক্টর জমিতে আমন ধানের চারা রোপন করেছিল কৃষক। গত ৫/৬ দিনের অব্যাহত পানি বৃদ্ধিতে বিলগুলোর প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার হেক্টর জমির আমন ধান তলিয়ে গেছে। বন্যায় আক্রান্ত ইউনিয়ন গুলো হলো, বড়বিহানলী, দ্বীপপুর, কাচারীকোয়ালীপাড়া, বাসুপাড়া, গোবিন্দপাড়া, নরদাশ, শুভডাঙ্গা ও সোনাডাঙ্গা ।

দূর্গত এলাকার কৃষকরা বলছেন গত এক সপ্তাহ ধরে অব্যাহত ভাবে বন্যার পানি বেড়েই চলেছে। এতে তাদেও উড়তি ধান গাছগুলো পানিতে তলিয়ে গেছে। অনেক ক্ষেতের ধান গাছ পচে নষ্ট হয়ে গেছে। এসব এলাকার কৃষকরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে। কৃষি বিভাগ বলছে এই মূহুর্তে সার্বিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নির্ধারন করা সম্ভব নয়। কারণ ধানের পাশাপাশি ওই সব এলাকার কৃষকদের বিভিন্ন তরিতরকারি এবং পানবরজের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিবুর রহমান জানান, চলমান বন্যায় কৃষকের ধান, পান, তরিতরকারি সহ বিভিন্ন আবাদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। আক্রান্ত এলাকার কৃষকরা তাদের গাবদিপশু নিয়ে চরম বিপদের মধ্যে রয়েছে। প্রতিদিনই আমরা বন্যা দূর্গত এলাকা পরিদর্শন করছি এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ও ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরি করছি।

খবরঃ দৈনিক সানশাইন