বাঘায় ফেন্সিডিলসহ ১০ মামলার নারী চোরাকারবারী আটক

বাঘা

রাজশাহীর বাঘায় ফেন্সিডিলসহ ১০ মামলার আসামী শিখা বেগম নামের এক নারী চোরাকারবারীকে আটক করা হয়েছে। আজ রোববার দুপুরে উপজেলা বলিহার এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে।
জানা যায়, বাঘা থানার পুলিশ গোপন সংবাদের ভিক্তিতে তাকে বাঘা উপজেলার বহিলহার এলাকা থেকে ১৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করে। আটককৃত শিখা বেগম (৩৮) পাবনা সদরের দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর পূর্বপাড়া মহল্লার জাহাঙ্গীর আলম আমিরের স্ত্রী। তার নামে পাবনা, ঈশর্দী, নাটোর, লালপুর, চারঘাট, বাঘা থানায় ১০টি চোরাচালানীর মামলা রয়েছে। সে দীর্ঘদিন থেকে বাঘা ও চারঘাট সীমান্ত এলাকা থেকে বডিতে জড়িয়ে ফেন্সিডিল, ইয়াবা, হেরোইন বহন করে নিজ এলাকায় বিক্রি করে।
এ বিষয়ে নিশ্চিত করেন বাঘা থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) মহসীন আলী বলেন, শিখা বেগম নামের এক চোরাকারবারীকে ফেন্সিডিলসহ গোপন সংবাদের ভিক্তিতে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। তার নামে চোরাকারবাবী আইনে মামলা দিয়ে সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।