বাঘায় বখাটের যুবকের ছুরিকাঘাতে কলেজ ছাত্রী আহত

বাঘা রাজশাহী বিভাগ

রাজশাহীর বাঘায় বখাটের যুবকের ছুরিকাঘাতে এক কলেজ ছাত্রী আহত হয়েছে। আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে বখাটে যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, গ্রেফতারের পর থানা হাজতের মধ্যে থেকে ছাত্রীর ফুফাতো ভাই আলী হোসেনকে দেখে নিবে বলে হুমকি দিয়েছে কলেজ পড়ুয়া বখাটে মিজানুর রহমান শিপন। হাজতের গেটের সামনে আলীকে দেখতে পাওয়ার পর পুলিশের সামনেই হুমকি দেয় বখাটে ওই যুবক। বখাটে শিপনের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয় এক কলেজ ছাত্রী। প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে গতকাল সোমবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলা পরিষদের গেটের সামনে তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে। উপজেলার বাজুবাঘা গ্রামের মুন্টুর কলেজ পড়–য়া বখাটে ছেলে মিজানুর রহমান শিপন। নিজেকে রক্ষার সময় ডান হাত কেটে রক্তাক্ত আহত হয় কলেজ ছাত্রী ।
স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে ভর্তি করে। পরে জনগনের সহায়তায় বখাটে শিপনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর হাজতের গেটের সামনে আলীকে দেখতে পেয়ে হুমকি দেয় ওই যুবক।
এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা উপজেলার উত্তর মিলিকবাঘা গ্রামের কামরুল হাসান বাদি হয়ে থানায় মামলা করেন। কামরুল হাসান জানান, এর ঘটনার তিন মাস আগে থানায় উত্ত্যক্তের অভিযোগ করা হয়েছিল। সে সময় স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাদের সাক্ষাতে মুচলেকা দিয়ে মুক্তি পায় বখাটে শিপন। কথা বললে, পূর্বের সম্পর্ক ছিল বলে দাবি করেছে শিপন। তবে তার এ দাবি নাকচ করেছে ছাত্রী।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) হীরেন্দ্রনাথ জানান, বখাটে ওই যুবকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।