বাবা হতে চান, পর্যাপ্ত ঘুমান

স্বাস্থ্য বার্তা

বর্তমান সময়ে নানা বিষয়ে অতিরিক্ত মানসিক চাপ, শারীরিক সমস্যা ও বেশি বয়স বাবা হওয়ার পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এসবের চেয়ে সবচেয়ে বড় অন্তরায় হলো রাত জাগা বা রাতে দেরিতে ঘুমাতে যাওয়া। তাই ফুটফুটে শিশুর বাবা হতে চাইলে রাত না জেগে সঠিক সময়ে এবং পর্যাপ্ত সময় ঘুমানো উচিত। এতে শারীরিক-মানসিক চাপ যেমন কমবে, তেমনি বাবা হওয়ার পথও সুগম হবে। এমনটাই দাবি করেছেন চীনের একদল গবেষক।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের হারবিন মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক এ গবেষণাটি করেছেন। সম্প্রতি মেডিকেল সায়েন্স মনিটর জার্নালে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষকেরা ৯৮১ জন পুরুষদের ঘুমানোর অভ্যাস নিয়ে এই গবেষণাটি করেছেন। তাঁদের তিনটি দলে ভাগ করা হয়েছিল। এর মধ্যে এক দলের ঘুমাতে যাওয়ার সময় ছিল রাত আটটা থেকে ১০টার মধ্যে। এক দল রাত ১০টা থেকে মধ্যরাত ও আরেকটি দলের ঘুমাতে যাওয়ার সময় ছিল মধ্যরাতের পর।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, যাঁরা রাত আটটা থেকে ১০টার মধ্যে নিয়মিত ঘুমাতে যান, তাঁদের বীর্য (স্পার্ম) সহজে ভাসতে পারে। এ কারণে এই ব্যক্তির বীর্যের ডিম্বাণু নিষিক্ত করার ক্ষমতা অনেক বেশি হয়। আর মধ্যরাতের পর যাঁরা ঘুমাতে যান, তাঁদের বীর্যে সক্রিয় শুক্রাণু কম থাকে। এমনকি দ্রুত ওই বীর্য সক্রিয়তা হারিয়ে ফেলতে পারে।

গবেষণায় আরও বলা হয়েছে, কেউ যদি ছয় ঘণ্টা বা এর কম সময় ঘুমান, তাহলে এ সমস্যা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে। এ ছাড়া টানা নয় ঘণ্টার বেশি সময়ও শুয়ে থাকলে বা ঘুমালেও একই সমস্যা হতে পারে; যা বাবা হওয়ার পথে অন্তরায়।

গবেষকেরা বলছেন, দেরিতে ঘুমাতে যাওয়া বা পর্যাপ্ত বিশ্রাম না নেওয়ার কারণে শরীরে ক্ষতিকর অ্যান্টিস্পার্ম অ্যান্টিবডির মাত্রা বেড়ে যায়। অ্যান্টিস্পার্ম অ্যান্টিবডি একটি প্রোটিন, যা সুস্থ বীর্য নষ্ট করে দিতে পারে। যাঁরা নিয়মিত রাতে আট ঘণ্টা ঘুমান, তাঁদের চেয়ে ছয় ঘণ্টার কম সময় ঘুমানো ব্যক্তির স্পার্ম কাউন্ট ২৫ শতাংশ কম হয়।

তাই এ প্রসঙ্গে ভারতের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন কিছু পরামর্শ দিয়েছে। সংস্থাটি বলছে পর্যাপ্ত ঘুমানোর জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। এ কারণে ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার সেরে ফেলতে হবে। মোবাইল ফোন, ট্যাব বা কম্পিউটার ঘুমানোর ৪৫ মিনিট আগে বন্ধ করে দিতে হবে। হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল, কক্ষে হালকা সুগন্ধী ছড়ানো ঘুমানোর ক্ষেত্রে সহায়তা করে। ঘুমানোর সময় ঢিলেঢালা পোশাক পরা উচিত—এতে ঘুম ভালো হয়।

খবরঃ প্রথম-আলো

2 thoughts on “বাবা হতে চান, পর্যাপ্ত ঘুমান

Comments are closed.