বাড়িতে জুয়ার আসরে বাধা, ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে খুন !

পাবনা রাজশাহী বিভাগ

পাবনায় প্রকাশ্য দিবালোকে বাড়িতে ঢুকে এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের রাধানগর রথঘর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যবসায়ীর নাম সুধাংশু বসাক (৫০)। তিনি ওই এলাকার নিমাই বসাকের ছেলে।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে নিহতের ব্যবসায়িক প্রতিপক্ষরা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্যে আমাদের কাজ চলছে। খবর পাওয়ার সাথে সাথেই আমাদের লোকজন ওই এলাকায় অবস্থান করছে।
নিহতের মা অন্নপূর্না বসাক বলেন, সুধাংশু বসাক দুপুরে খাবার পর বাড়িতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। এ সময় মনজিল নামের এক ব্যাক্তি মদ্যপ অবস্থায় তাদের বাড়িতে ঢুকে মাতলামি করার সময় বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে বললে সে ক্ষিপ্ত হয়। তার সাথে এ সময় হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। সে ক্ষিপ্ত অবস্থায় বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় এবং কিছুক্ষণ পর সে তার দলবল নিয়ে এসে ঘরের মধ্যে তাকে বেদম মারপিট করে। এরই এক পর্যায়ে শহীদ ও সুধাংশুকে ছুরিকাঘাত করে দ্রুত বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। এরপর তার স্ত্রীর চিৎকারে আমরা সবাই ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধারের পর পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করে তিনি আরও বলেন, আমরা হিন্দু বলেই এ ধরনের কর্মকাণ্ড করতে পারলেন। আমাদের উপর একের পর এক নির্যাতন করতেন এবং বাড়িতে জুয়ার আসর বসাতেন। প্রতিবাদ করার কারনেই আমার ছেলেকে জীবন দিতে হলো। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠান।

এলাকাবাসী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, রাধানগর এলাকার মনজিল ওই বাড়িতে জুয়ার আসর ও মদের ব্যবসা করতেন। মনজিলকে বাধা দিলে শুধাংশু এর সাথে মাঝে মাঝেই ঝামেলা হতো। মনজিল জোর করেই ওই বাড়িতে জুয়ার আসর বসাতেন। এ নিয়ে ইতিপূর্বেও তাদের কয়েকবার হাতাহাতির ঘটনা ঘটে বলেও তিনি জানান। হামলাকারীদের গ্রেফতারে রাধানগর এলাকায় ব্যাপক ভাবে পুলিশি অভিযান শুরু করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত আকারে থানায় অভিযোগ দেয়নি বলেও জানান ওসি।