বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবস পালিত

জাতীয়

সারাবিশ্বের মত বাংলাদেশেও পালিত হয়েছে বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবস। বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ প্ল্যানার্স এর উদ্যোগে সারাদিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ বছরের পরিকল্পনা দিবস পালিত হলো। প্রতিবছর নভেম্বরের ৮ তারিখে বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবস পালিত হলেও এ বছর ৬ নভেম্বর সারাবিশ্বে একসাথে দিবসটি পালিত হচ্ছে। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য “আবাসন পুনর্গঠন: সমাজ সুদৃঢ়করণ”।

সকাল ৮ টায় ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে দিবসটির উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ প্ল্যানার্সের সভাপতি এবং বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক গোলাম রহমান। পরে সেখান থেকে একটি র‍্যালি বের হয়ে শেষ হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে।

র‍্যালিতে অংশগ্রহণ করেন নগর পরিকল্পনাবিদ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা ও সাধারণ জনগণ। র‍্যালিতে অংশ নেয়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মীর রাসেল বলেন, বাংলাদেশে বিশেষ করে ঢাকা শহরে সুষ্ঠু নগর পরিকল্পনা খুবই দরকার। সাধারণ মানুষ নগর পরিকল্পনা সম্পর্কে সচেতন হবে এ দিবসটির মাধ্যমে।

নগর পরিকল্পনাবিদ আখতার মাহমুদ দিবসটির বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তিনি বলেন অপরিকল্পিত শহর গড়ে তুলে শুধু আমাদের দুর্দশা বাড়বে।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনাবিদরা বাংলাদেশে ভূমির সঠিক ব্যবহারের জন্য একটি জাতীয় ভৌত পরিকল্পনা কাঠামো গড়ে তোলার দাবি জানান। এছাড়াও স্থানীয় সরকারগুলোতে পরিকল্পনা শাখা রেখে সেখানে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু এবং বিসিএস এ নগর পরিকল্পনাবিদ দের জন্য একটি আলাদা ক্যাডার রাখার দাবিও জানান তাঁরা।