বুধবার সারাদেশে বিক্ষোভ: বৃহস্পতিবার হরতাল

জাতীয়

hartal-2

চলমান অবরোধের পাশাপাশি ১ এপ্রিল (বুধবার)সারাদেশে থানায় থানায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল এবং বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) বৃহস্পতিবার ভোর ৬ টা থেকে শুক্রবার ভোর ৬ টা পর্যন্ত দেশব্যাপী ২৪ ঘণ্টার সর্বাত্মক হরতাল কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ’২০১৫) এক বিবৃতিতে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু এ কর্মসূচি ঘোষণার কথা জানিয়েছেন। তবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের কারণে কেবলমাত্র ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বৃহস্পতিবার ঘোষিত হরতাল কর্মসূচির আওতামুক্ত থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিএনপি’র অন্যতম যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদসহ ২০ দলীয় জোটের গুমকৃত সকল বিরোধী নেতা কর্মীদের অবিলম্বে সুস্থ ও অক্ষত অবস্থায় ফেরত দান, ২০ দলীয় জোটের কারান্তরীণ শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের মুক্তি এবং গণগ্রেফতারসহ মামলা হামলা বন্ধ করে দেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনা এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থার অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

অন্যান্য কর্মসূচি পরিবর্তিত হলেও ২০ দলীয় জোট নেতা খালেদা জিয়া কর্তৃক পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত দেশব্যাপী চলমান অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। একইভাবে গত ২ দিন ২০ দলীয় জোটের ডাকা হরতাল কর্মসূচি অত্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে পালন করায় খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে জোটের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীসহ দেশবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছাও জানানো হয়েছে।