বোর্ডের ভুলে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অকৃতকার্য ৩৫০ পরীক্ষার্থী, ফল সংশোধনের দাবি

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ভুলে অকৃতকার্য হয়েছে রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও মাগুরা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৩৫০ শিক্ষার্থী। ফল সংশোধনের দাবিতে সোমবার রাজশাহীতে মানববন্ধন করেছে তারা। একই সঙ্গে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সুশিল কুমার পালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা জানান, গত ৪ জুন তাদের মেকাট্রনিক্স বিভাগের চতুর্থ পর্বের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্সের পরীক্ষা ছিল। সিলেবাস অনুযায়ী, ৬৬২২ কোডের বই পড়ে পরীক্ষা দিতে যান শিক্ষার্থীরা। কিন্তু প্রশ্নপত্র দেয়া হয় ৬৬৪৩ কোডের বই থেকে। তখনই বিষয়টি শিক্ষকদের জানান শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণায় ইনস্টিটিউটগুলো বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করে।

ওই সময় বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, ভুল হয়েছে তাদের। খাতা মূল্যায়নে বিষয়টি তারা বিবেচনায় নেবে। এ ঘোষণায় তারা যতটুকু পেরেছেন খাতায় লিখেছেন। কিন্তু ১ অক্টোবর প্রকাশিত ফলাফলে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্সে এ তিন ইনস্টিটিউটের ৩৫০ জন পরীক্ষার্থীর সবাইকে অকৃতকার্য দেখানো হয়েছে। দ্রুত ফলাফল সংশোধনের দাবি জানিয়েছে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

বিষয়টি স্বীকার করে রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, এনিয়ে আমরা বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। আশা করছি দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তি হবে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সুশিল কুমার পাল সিস্টেম এনালিস্টের অতিরিক্ত দায়িত্বে রয়েছেন। এতে দাফতরিক কাজে দেখা দিয়েছে চরম স্থবিরতা। ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়ে সম্প্রতি ২০০ ইনস্টিটিউট প্রধান শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান বরাবর আবেদন করেছেন।

খবরঃ জাগোনিউজ২৪

3 thoughts on “বোর্ডের ভুলে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অকৃতকার্য ৩৫০ পরীক্ষার্থী, ফল সংশোধনের দাবি

  1. ভাই কারিগরি বোর্ডের মাথা নষ্ট। ওরা সাদা খাতা জমা দিলে প্লাস দেয়।।আর প্লাস মার্ক তুললে ফেল করায়য়।।জল জ্যান্ত প্রমান আমি নিজে।।।

Comments are closed.