বড় পর্দায় আসছেন ১২ নায়িকা

বিনোদন

বড় পর্দার অর্থাৎ সিনেমার নায়িকা হওয়ার জন্য ১২ জন নায়িকা অপেক্ষার প্রহর গুনছেন। নিকট ভবিষ্যতে এ সংখ্যা আরও বাড়বে। কারণ, বর্তমান সময়ের বেশির ভাগ প্রযোজক-পরিচালকই আনকোরা নতুন মুখ নিয়ে ছবি নির্মাণে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। নতুন-পুরনো, নবীন-প্রবীণ প্রতিষ্ঠিত সকল পরিচালকেরই নতুন নায়িকার প্রতি ঝোঁক বাড়ছে। এখন কাজ করছেন এমন নতুন নায়িকার সংখ্যা অনেক। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে যে ১২ জন নায়িকাকে চিহ্নিত করা হয়েছে তাদের চলচ্চিত্রে ভাল একটা সম্ভাবনা রয়েছে এবং তারা আগামী ঈদ থেকে শুরু করে এক বছরের মধ্যেই দর্শকদের অভিবাদন জানাবেন।

এসব নায়িকা হলেন- নুসরাত ফারিয়া, প্রিয়ন্তি পরী, মারজান জেনিফা, দিপালী আকতার তানিয়া, আর্শি হোসেন, ভাবনা, অরিন, সোনিয়া, লামিয়া, অ্যানি এবং পড়শী। এদের মধ্যে সবার আগে বড় পর্দায় আসছেন আলোচিত মডেল ও উপস্থাপিকা নুসরাত ফারিয়া। তাকে আসন্ন ঈদেই দেখা যাবে বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘আশিকী’তে। বাংলাদেশের আবদুল আজিজ ও ভারতের অশোকপতি পরিচালিত এ ছবিতে নুসরাত ফারিয়ার নায়ক কলকাতার অংকুশ। ঢাকার জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং কলকাতার এস কে প্রোডাকশন প্রযোজিত এ ছবিটি আসন্ন ঈদে মুক্তি পাবে। এরপরের তালিকায় রয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের আবিষ্কার প্রিয়ন্তি পরী। মানিকের ‘চুপি চুপি প্রেম’ ছবির মাধ্যমে আগামী ৬ই নভেম্বর দর্শকদের সামনে আসবেন এই নতুন নায়িকা। এরপরে একে একে বড় পর্দায় আসবেন সায়মন তারিকের ‘মাটির পরী’র মাধ্যমে লামিয়া। ‘মুসাফির’-এর মাধ্যমে মারজান জেনিফা। সোহেল বাবুর ‘বাজে ছেলে’র মাধ্যমে আর্শি হোসেন। দীপালী আসবেন কাজী হায়াৎ-এর ‘ছিন্নমূল’ ছবির মাধ্যমে। অনিমেষ আইচের ‘ভয়ংকর সুন্দর’-এর মাধ্যমে ভাবনা। হাবিবুল ইসলাম হাবিবের ‘রাত্রির যাত্রী’ ছবির মাধ্যমে সোনিয়া। শামীম আহমেদ রনির ‘মেন্টাল’ ছবির মাধ্যমে কণ্ঠশিল্পী পড়শী। ‘রংধনু’ ছবির মাধ্যমে মডেল অ্যানি এবং নতুন পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস পরিচালিত ‘রাজনীতি’ ছবির মাধ্যমে আসবেন মডেল পিয়া বিপাশা। এদের পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকজন নতুন নায়িকা বড় পর্দায় আসবেন। এরা হলেন- শাহিন সুমনের ‘প্রেম বলে কিছু নেই’ ছবির মাধ্যমে সানিতা।

‘মাতাল’ ছবির মাধ্যমে অধরা খান এবং সাইমন তারিকের ‘গুণ্ডামী’ ছবির মাধ্যমে আইটেম গার্ল বিপাশা কবীর। এ সময়ে চলচ্চিত্র শিল্পে নতুন নায়িকরাই দর্শক মাতাচ্ছেন। এদের মধ্যে রয়েছেন মাহিয়া মাহি, পরীমনি, বিদ্যা সিনহা সাহা মীম, জয়া আহসান, ববি ও আঁচল। পুরনোদের মধ্যে মৌসুমী, অপু বিশ্বাস ও নিপুণ ব্যস্ত। শাবনূর, পপি, পূর্ণিমা থেকেও নেই। আরও নতুন নায়িকা আসছেন, সঙ্গে নায়কও। দু-একটি ছবি মুক্তি দিয়ে বড় সাফল্য না পেলেও শিরিন শিলা, অমৃতা খান, নিঝুম রুবিনা, মিষ্টি জান্নাত, জানভি প্রমুখ নায়িকা ভাল সুযোগ পেলে নিজেদের মেলে ধরতে পারবেন বলে চলচ্চিত্রবোদ্ধারা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। এখন এ নতুনদের জন্য প্রয়োজন সুন্দর গল্প, গল্পানুযায়ী চরিত্র। নতুনদের দর্শকদের কাছে তুলে ধরার জন্য প্রয়োজনীয় প্রচার-প্রচারণা। সর্বোপরি দর্শকদের উপযোগী করে চলচ্চিত্র নির্মাণ। এ সবকিছু করতে প্রযোজক-পরিচালকরা সক্ষম হলে চলচ্চিত্র শিল্প বেশ কিছু দর্শক পছন্দের নায়িকা পাবেন এমন আশা করাই যায়।