ভারত ছাড়ার কথা ভাবছেন আমির খান

বিনোদন

বলিউড অভিনেতা আমির খান জানিয়েছেন, গোমাংস খাওয়া নিয়ে ভারতে চলমান অহিষ্ণুতায় তিনি ভীত হয়ে পড়েছেন। এমনকি তার স্ত্রী কিরণ রাও দেশ ছেড়ে যাওয়ার কথা বলেছেন।

সোমবার রামনাথ গোয়েঙ্কা এক্সেলেন্স ইন জার্নালিজম পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন আমির খান। সেখানে আমির জানান, ভারতের এই ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতায় তিনি শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। বেশ কিছু দিন ধরেই তিনি এই বিষয়টি লক্ষ্য করছেন যে, গোহত্যার জের ধরে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের (মুসলমানদের)ওপর হামলা দিন দিন বেড়েই চলেছে। তিনি জানান, ইদানীং দৈনিক সংবাদপত্র পড়তেও তিনি ভয় পান।

এনডিটিভি ও বলিউড লাইফ এ খবর দিয়েছে।

আমির খান বলেন, বাসায় আমি যখন কিরণের সঙ্গে কথা বলি সে বলেছে, ‘আমাদের কি ভারতের বাইরে যাওয়া উচিত?’ কিরণের পক্ষে এমন কথা বলার বিষয়টি ভয়াবহ ও বড় একটা মন্তব্য। সে আসলেই সন্তানদের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত। আমাদের চারপাশের প্রতিদিনের বদলে যাওয়া পরিবেশ নিয়ে সে ভীত।একজন মানুষ হিসেবে, একজন নাগরিক হিসেবে, আমার ভেতরে যে ভয় ও আতঙ্ক ক্রমশ দানা বাঁধছে, তা আমি অস্বীকার করতে পারব না।

ভারতজুড়ে ক্রমবর্ধমান ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও মুসলমানদের ওপর হামলার বিপরীতে প্রতিবাদ জানাতে দেশটির লেখক, বিজ্ঞানী, চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনয়শিল্পীদের পুরস্কার প্রত্যাখ্যানের বিষয়টিকে সমর্থন করছেন আমির খান। তিনি জানিয়েছেন, যত দিন এই প্রতিবাদের ভাষা অহিংস থাকবে তত দিন তিনি একে সমর্থন করবেন।

তবে আমিরের প্রসঙ্গে দেশটির সংখ্যালঘু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি বলেন, আমির এখানে নিরাপদ। এ ধরনের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ভারতের আরেক মন্ত্রী কিরণ রিজিজু বলেন, ‘বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় মৃত মানুষের সংখ্যা দিন দিন কমে আসছে। তাই এ ধরনের বক্তব্য অমূলক।’