মশার কামড়ে অতিষ্ঠ জাবি শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসের খবর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) প্রশাসনের অবহেলা আর নিষ্ক্রিয় ভূমিকার কারণে মশার কামড়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে শিক্ষার্থীরা। গত মাসেরও অধিক সময় ধরে মশার উৎপাত বাড়লেও মশা নিধনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। ফলে মশার কামড়ে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া এমনকি ঘুমাতেও পারছেন না। সরেজমিনে বিভিন্ন হলের আশপাশ ঘুরে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি হলের পাশের ড্রেনগুলোতে পানি জমে রয়েছে। এসব ড্রেন দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার করা হয়নি। তাছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর আশপাশের জলাশয় ও ডোবা কচুরিপানা ও অন্যান্য ময়লা পচে পানি দুর্গন্ধ হয়ে পড়েছে। এসব অপরিষ্কার জায়গাগুলো পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ওষুধ স্প্রে করে মশা কমানো যাবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের ড্রেনগুলোতে এবং বিভিন্ন আবদ্ধ জায়গায় যেন পানি জমে না থাকে, তা নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি ডোবা ও জলাশয় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। প্রতি মাসে অন্তত দুইবার মশা মারার কেমিক্যাল ব্যবহার করতে হবে। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে জানান, প্রশাসনের নিষ্ক্রিয় ভূমিকার কারণে আবাসিক হলগুলোতে শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়তই বিভিন্ন সমস্যার শিকার হচ্ছেন। এ বিষয়ে একাধিকবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে জানানো হলেও কোনো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি ‍কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি ও মওলানা ভাসানী হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক সৈয়দ মো. হাফিজুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে মশা নিধনে কেমিক্যাল দেওয়া শুরু করা হয়েছে। এ বিষয়ে জানার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. আবুল হোসেনকে একাধিক বার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/466450.html