মাথায় আঘাত পেয়ে মৃত্যু হয়েছে রাবি শিক্ষার্থীর

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

মাথায় বড় ধরনের আঘাতের ফলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব আবদুল লতিফ হলের শিক্ষার্থী মোতালেব হোসেন লিপুর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) বিকেল ৩টার দিকে মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক ডা. এনামুল হক।

তিনি জানান, তার মাথার ডান পাশে বড় ধরনের আঘাতের চিহ্ন আছে। যার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। তার বুকের দু’পাশে দুটো হাড়ও ভেঙে গেছে।

সকাল ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব আবদুল লতিফ হলের ডাইনিংয়ের পাশ থেকে লিপুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য লিপুর রুমমেট মনিরুল ইসলাম ও প্রদীপ নামে দুই ছাত্রকে আটক করা হয়।

লিপু গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু থানার মকিমপুর গ্রামের বদর উদ্দিনের ছেলে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার আমীর জাফর বলেন, প্রাথমিকভাবে এটাকে হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন দেখার পর সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। ইতোমধ্যেই আমরা তদন্ত শুরু করেছি।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে জানান, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ ক্যাম্পাসে নিয়ে আসা হয়। বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাজা করার পর মরদেহ গ্রামের বাড়ি পাঠানো হয়।

খবরঃ বাংলানিউজ