মায়ের নির্দেশে কিশোরীকে ধর্ষণ

অপরাধ আন্তর্জাতিক

মায়ের নির্দেশে ফুফাতো বোনকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ভারতের মুম্বাইয়ের নাভপাদা এলাকার পুলিশ আজ সোমবার এ ঘটনার মূল অভিযুক্ত রশিদ আলিকে (৩১) গ্রেপ্তার করেছে। এরপরই এ ঘটনা গণমাধ্যমের সামনে আসে।

নাভপাদা পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা সুখদেব রাওয়ের বরাত দিয়ে ডেকান ক্রনিক্যাল জানায়, নিগৃহীত কিশোরীর বয়স ১৬ বছর। যে নারীর নির্দেশে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে, তিনি সম্পর্কে ওই কিশোরীর বাবার বোন (ফুফু)।

জানা গেছে, ওই কিশোরীকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন রশিদ আলি। কিন্তু কিশোরীর পরিবার বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়নি। এই রাগে ফুফু শাকিরা বানু (৪৮) ধর্ষণ করার নির্দেশ দেন। গ্রেপ্তারের পর রশিদ আলি জানিয়েছেন, মায়ের নির্দেশে কিশোরী বোনকে ধর্ষণ করেছেন তিনি।

কিশোরীটি স্থানীয় একটি কলেজের ছাত্রী। সাত বছর ধরে সে শাকিরা বানুর বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করত। মেয়েটির বয়স ১২ পার হতেই ফুফু তাঁর ছেলের সঙ্গে মেয়েটির বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু রশিদ আলি ‘অপ্রকৃতিস্থ’ হওয়ায় এই বিয়েতে রাজি হয়নি পরিবার। বারবার বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় ‘শেষ উপায়’ হিসেবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফুফু শাকিরা বানু।

এনটিভি