মেয়ের সঙ্গে প্রেমে বাধা দেয়ায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যা

পাবনা রাজশাহী বিভাগ

পাবনার বেড়া থানার দাসপাড়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে মোয়াজ্জেন শেখ (৪৫) নামে এক রিকশাচালককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনায় হাসনা বেগম নামে আরও এক নারী আহত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে বেড়া মডেল থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন জানান, আহত নারীকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা যায়, বেড়া থানার দাসপাড়া গ্রামের মোয়াজ্জেন শেখের বড় মেয়েকে তারই আত্মীয় এবং একই বাড়িতে বসবাসরত আসান শেখের ছেলে সবুজ বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিত।

এ নিয়ে দুই পরিবারের সাথে অধিকাংশ সময়ই ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো।

তিন দিন আগে সবুজ প্রকাশ্যে মোয়াজ্জেন শেখকে এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে প্রাণনাশের হুমকি দেন।

আজ মঙ্গলবার সকালে সবুজ মোয়াজ্জেন শেখের বড় মেয়েকে হাত ধরে নিয়ে যেতে চাইলে মোয়াজ্জেন শেখ বাধা দেন। এ সময় উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়।

এর এক পর্যায়ে সবুজ ঘর থেকে হাঁসুয়া এনে বুকে পিঠে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তার আত্মীয় হাসনা বেগমকেও আঘাত করে সবুজ। এরপর সবুজ মেয়েটির গলায় ছুরি ধরে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন