মোহনপুরের কেশরহাটে ব্যবসায়ীদের তোপের মুখে ইউএনও

মোহনপুর রাজশাহী

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে গিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের তোপের মুখে পড়েছেন ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবীর। বিভিন্ন অভিযোগে জরিমানা করলে অভিযান পরিচালনার সময় তাকে অবরুদ্ধ করে রাখেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও অভিযান চালাতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

রাজশাহীর মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হামিদ জানান, বিকেল ৪টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবীরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কেশরহাটের আটার দোকানসহ বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালাতে থাকেন। এসময় তিনি বিভিন্ন ব্যবসায়ী এবং দোকান মালিককে জরিমানা করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা তাকে অবরুদ্ধ করে রাখেন এবং রাস্তায় বিক্ষোভ করতে থাকেন।

পরে পুলিশ গিয়ে ব্যবসায়ী ও দোকান মালিকদের শান্ত করে। সন্ধ্যায় কেশরহাট পৌর মেয়র শহীদুজ্জামান শহীদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলার পর অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে ইউএনওকে মুক্ত করা হয়। তবে অবরুদ্ধ করে রাখার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবির। তিনি বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করায় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সামান্য ক্ষুব্ধ হলেও তাকে অবরুদ্ধ করে রাখার মতো ঘটনা সেখানে ঘটেনি। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সঙ্গে থাকা পুলিশের প্রহরায় তিনি সেখান থেকে নির্বিঘ্নে ফিরে আসেন। এসময় তিনি ১০টি প্রতিষ্ঠানকে ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করেন বলে জানান।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/462757.html