রাওদার মৃত্যু তদন্তে মালদ্বীপের ২ পুলিশ রাজশাহীতে

রাজশাহী

‘ভোগ’ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ কন্যা রাওদা আতিফের মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে এবার রাজশাহীতে পৌঁছেছেন মালদ্বীপের দুই পুলিশ কর্মকর্তা।

তারা হলেন- মালদ্বীপ পুলিশের অতিরিক্ত সিনিয়র পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ রিয়াজ ও সিনিয়র পুলিশ পরিদর্শক (ইন্সপেক্টর) আহম্মেদ আলী।

সোমবার (৩ এপ্রিল) বিকেলে প্লেনে করে তারা ঢাকা থেকে রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমানবন্দরে পৌঁছান।

এরপর বিমানবন্দর থেকে রাজশাহী সার্কিট হাউজে যান তারা। বর্তমানে সেখানেই অবস্থান করছেন। তারাও রাওদার আত্মহত্যার ঘটনা তদন্ত করবেন।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার (সদর) ইফতে খায়ের আলম জানান, দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে এখানে এসেছেন তারা।

এক প্রশ্নের জবাবে ইফতে খায়ের বলেন, তারা তদন্ত করবেন এইটুকু বলেছেন। কিন্তু তার প্রক্রিয়াটি কী হবে সে সম্পর্কে এখনও কিছু বলেননি তারা। বিকেলে এসেছেন আগামীকাল এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানাতে পারেন।

এদিকে, রাজশাহীর শাহ মখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিল্লুর রহমান বলেন, রাওদার আত্মহত্যার ঘটনাটি এখন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। মহানগর ডিবি পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) রাশেদুল হককে এজন্য নিযুক্ত করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৯ মার্চ রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের মহিলা হোস্টেলের ২০৯ নম্বর কক্ষ থেকে রাওদা আতিফের (২০) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

৩১ মার্চ দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হয়। তিন সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের একটি টিম তার মরদেহের ময়নাতদন্ত করেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলা হয়েছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।  গলায় ফাঁস দেওয়ার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া অন্য কোনো আলামত মেলেনি।

পরে ১ এপ্রিল দুপুর সোয়া ২টার দিকে মহানগরীর হেতমখাঁ গোরস্থানে তার দাফন কাজ শেষ করা হয়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ১৩তম ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন রাওদা। বিদেশি কোটায় ভর্তির পর গত বছরের ১৪ জানুয়ারি মহিলা হোস্টেলের ২য় তলার ওই কক্ষে ওঠেছিলেন রাওদা। ওই ব্লকে আরও ১৪জন বিদেশি ছাত্রী থাকেন। এক সময় প্রখ্যাত ভোগ ম্যাগাজিনের মডেল হয়েছিলেন শখের বসে।

শিক্ষার টানে মালদ্বীপ থেকে বাংলাদেশে এসে ভর্তি হয়েছিলেন এ মেডিকেল কলেজে। এরপর লাশ হলেন সদ্য টিন অতিক্রান্ত এ মালদ্বীপি মেয়ে। লেখাপড়ার পাশাপাশি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগে সার্টিফিকেট কোর্সও করছিলেন রাওদা।

খবরঃ বাংলানিউজ

2 thoughts on “রাওদার মৃত্যু তদন্তে মালদ্বীপের ২ পুলিশ রাজশাহীতে

Comments are closed.