রাজশাহীতে অর্থাভাবে মরদেহ ফেলে গেলেন স্বজনরা

রাজশাহী

অর্থের অভাবে মরদেহ ফেলে রেখে চলে গেলেন পরিবারের সদস্যরা। এমনটিই ঘটেছে রাজশাহী মহানগরীর বক্ষব্যধী হাসপাতাল এলাকায়।

ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিরাজগঞ্জের এক রোগী মারা যান মঙ্গলবার (০৫ জুলাই) দিবাগত রাতে। মরদেহ নিয়ে যেতে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া সংগ্রহ করতে না পেরে বক্ষব্যধি হাসপাতাল এলাকায় ফেলে রেখে চলে যান পরিবারের লোকজন।

মৃত ওই রোগীর নাম তাপসী রানী (২৫)। তার বাবার নাম গণেশ রায়। বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদর এলাকায়।

বুধবার (০৬ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে রাজপাড়া থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই রোগীর মরদেহ উদ্ধার করে। সেখান থেকে পুলিশ মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

বক্ষব্যধি হাসপাতাল সূত্র অনুযায়ী, যক্ষ্মা আক্রান্ত তাপসী রানীকে গত ২২ জুন রাজশাহী বক্ষব্যধী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর থেকে তিনি ওই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তিনি মারা যান। পরে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল থেকে মরদেহ বের করে নিলেও তারা আর সেটি করেননি। মরদেহ বক্ষব্যধী হাসপাতাল এলাকায় ফেলে রেখে চলে যান।

খবরঃ বাংলানিউজ

3 thoughts on “রাজশাহীতে অর্থাভাবে মরদেহ ফেলে গেলেন স্বজনরা

Comments are closed.